kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়ে ভারত গেলেন চীনের প্রেসিডেন্ট

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানিয়ে ভারত গেলেন চীনের প্রেসিডেন্ট

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে গণচীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিংকে বিদায় জানান। ছবি : পিএমও

বাংলাদেশে দুই দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে গতকাল শনিবার সকালে ভারতে গেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং। এর আগে তিনি সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

গত ৩০ বছরে চীনের কোনো রাষ্ট্রপ্রধান এই প্রথম বাংলাদেশ সফর করলেন।

ঢাকা ছাড়ার সময় চীনা প্রেসিডেন্টকে আন্তরিক বিদায় জানানো হয়। সকাল ১০টা ২০ মিনিটে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে চীনের একটি বিশেষ বিমানে করে শি চিনপিং ও তাঁর সফরসঙ্গীরা ঢাকা ত্যাগ  করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে গিয়ে চীনের প্রেসিডেন্টকে বিদায় জানান। প্রধানমন্ত্রী তাঁকে বিমানের সিঁড়ি পর্যন্ত এগিয়ে দেন।

এর আগে শেখ হাসিনা বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে গিয়ে ফুলের তোড়া দিয়ে চীনের নেতা চিনপিংকে শুভেচ্ছা জানান। চীনের নেতাকে বহনকারী বিমানটিকে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর চারটি যুদ্ধবিমান বিশেষ প্রহরায় বাংলাদেশের আকাশসীমার শেষ প্রান্ত পর্যন্ত পৌঁছে দেয়। এর আগে রাষ্ট্রপতির গার্ড রেজিমেন্টের একটি চৌকস দল চিনপিংকে সশস্ত্র অভিবাদন জানায়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিমানবন্দরে উপস্থিত তাঁর মন্ত্রিসভার সহকর্মী ও অন্য গণ্যমান্য ব্যক্তিদের চিনপিংয়ের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম প্রমুখ বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ, পররাষ্ট্রসচিব শহিদুল হক, তিন বাহিনীর প্রধান, আইজিপি, প্রধানমন্ত্রীর প্রেসসচিব, কূটনৈতিক কোরের ডিন, ঢাকায় চীনের রাষ্ট্রদূত ও ঊর্ধ্বতন বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

জাতীয় স্মৃতিসৌধে চিনপিংয়ের শ্রদ্ধা নিবেদন : চীনা প্রেসিডেন্ট শি চিনপিং গতকাল সকালে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। তিনি দর্শনার্থী বইতে স্বাক্ষর করেন এবং সেখানে একটি গাছের চারা লাগান।

সকাল ৯টার দিকে চীনের প্রেসিডেন্ট জাতীয় স্মৃতিসৌধে পৌঁছালে তাঁকে অভ্যর্থনা জানান এলজিআরডি ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন এবং মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। সূত্র : বাসস।


মন্তব্য