kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দুর্নীতির মামলা

কোস্ট গার্ডের সাবেক ডিজি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কোস্ট গার্ডের সাবেক ডিজি গ্রেপ্তার

দুর্নীতির মামলায় কোস্ট গার্ডের সাবেক মহাপরিচালক (ডিজি) শফিক-উর-রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গত বুধবার রাত ১টায় মহাখালী ডিওএইচএসের বাসা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁকে ঢাকার আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

অন্য একটি মামলায় সেনাবাহিনী থেকে চাকরিচ্যুত কর্পোরাল মো. আবুল কালামকে গতকাল গ্রেপ্তার করেছে দুদক। দুদকের জনসংযোগ শাখা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে।

শফিক-উর-রহমান কোস্ট গার্ডের মহাপরিচালক ছিলেন ১৯৯৫ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে ১৯৯৮ সালের আগস্ট পর্যন্ত। মামলার বিবরণ অনুযায়ী, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় কোস্ট গার্ডের নামে গ্রামীণ অবকাঠামো সংস্কার কর্মসূচির আওতায় ১৯৯৬-৯৭ ও ১৯৯৭-৯৮ অর্থবছরে ১১ হাজার ১০০ মেট্রিক টন গম বরাদ্দ করে। নীতিমালা অনুযায়ী সাধারণত এ গম বিক্রয় করা যেত না। তবে জরুরি প্রয়োজনে বরাদ্দকৃত গমের ২৫ শতাংশ সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয় করা যেত। বাস্তবে ওই গম ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা পুরোটাই সরকারি মূল্য প্রতি কেজি ১১ টাকা ৬৪ পয়সার চেয়েও কম দামে (প্রতি কেজি পাঁচ টাকা দরে) বিক্রি করে দেয়। এতে রাষ্ট্রের সাত কোটি ৩৭ লাখ চার হাজার টাকা ক্ষতি হয়।

এ পরিমাণ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে ১৯৯৮ সালে তৎকালীন দুর্নীতি দমন ব্যুরো শফিক-উর-রহমানসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করে। এটিকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন তিনি। রিটের নিষ্পত্তি হওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

ওই পরোয়ানার ভিত্তিতেই শফিক-উর-রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। উল্লেখ্য, তিনি বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য।

চাকরিচ্যুত কর্পোরাল মো. আবুল কালামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্রতারণা করে সেনা কর্মকর্তাদের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে। রাজধানীর ক্যান্টনমেন্ট থানায় গত বছরের ২৪ নভেম্বর তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।


মন্তব্য