kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কানাডায় প্রধানমন্ত্রী

বাবার পক্ষে ‘বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা’ নিলেন জাস্টিন ট্রুডো

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বাবার পক্ষে ‘বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা’ নিলেন জাস্টিন ট্রুডো

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অনন্যসাধারণ অবদান রেখেছিলেন কানাডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে এলিয়ট ট্রুডো। বাঙালি জাতির শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতার নিদর্শনস্বরূপ তাঁকে দেওয়া মরণোত্তর ‘বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা’ গত শুক্রবার মন্ট্রিয়লে তাঁর (পিয়েরে) ছেলে ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর হাতে তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : পিআইডি

বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু কানাডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে এলিয়ট ট্রুডোকে মরণোত্তর ‘বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ সম্মাননা’ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত শুক্রবার কানাডার মন্ট্রিয়লে প্রয়াত পিয়েরে ট্রুডোর ছেলে ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর হাতে তিনি ওই সম্মাননা তুলে দেন।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকে সমর্থন এবং এ ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় কানাডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডোকে ২০১২ সালে বাংলাদেশ সরকার সম্মাননা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়। বাসস জানায়, গত শুক্রবার ওই সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী ও কানাডায় বাংলাদেশের হাইকমিশনার মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে পররাষ্ট্রসচিব মো. শহিদুল হক সাংবাদিকদের জানান, সম্মাননা প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে কানাডার সাবেক প্রধানমন্ত্রী পিয়েরে ট্রুডোর অবদানের কথা স্মরণ করেন। শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতাযুদ্ধে যে কয়েকজন বিশ্বনেতা বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন পিয়েরে ট্রুডো তাঁদের অন্যতম।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীন হওয়ার পরপরই কয়েকটি দেশ বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়। কানাডা তাদের একটি। মুক্তিযুদ্ধের সময় পিয়েরে ট্রুডো আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের পক্ষে দৃঢ়ভাবে কথা বলেছেন। শেখ হাসিনা বলেন, পিয়েরে ট্রুডো কমনওয়েলথ ও জাতিসংঘে বাংলাদেশের সদস্যপদ লাভের জন্য খোলাখুলিভাবে সমর্থন দিয়েছেন।

পররাষ্ট্রসচিব জানান, সম্মাননা গ্রহণের সময় পিয়েরে ট্রুডোর ছেলে ও কানাডার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেন, ‘আমরা উভয়ে দ্বিতীয় প্রজন্ম। আপনার পিতা ও আমার পিতা উভয়েই প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ’

পররাষ্ট্রসচিব জানান, সম্মাননা প্রদানের সময় উভয় প্রধানমন্ত্রীর পিতাদের বন্ধুত্বের সম্পর্ককে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয়। পরিবারের পক্ষ থেকে এই সম্মাননা গ্রহণ করায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে প্রধানমন্ত্রী তাঁর কৃতজ্ঞতা জানান।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু এবং বন্ধুরাষ্ট্র কানাডার উন্নয়ন, সুখ ও সমৃদ্ধি কামনা করছি। ’ শেখ হাসিনা কানাডার সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন।


মন্তব্য