kalerkantho


জানা-অজানা

কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকত

[নবম-দশম শ্রেণির ভূগোল ও পরিবেশ বইয়ে কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকতের কথা উল্লেখ আছে]

হাবিব তারেক   

৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকত

বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের একটি সমুদ্রসৈকত কুয়াকাটা। ১৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এ সৈকত থেকে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত দুটিই ভালোভাবে দেখা যায়। দেশের অন্যতম নৈসর্গিক এ সমুদ্রসৈকতকে ‘সাগরকন্যা’ নামেও ডাকা হয়।

কুয়াকাটার অবস্থান পটুয়াখালীর কলাপাড়ায়। ঢাকা থেকে সড়কপথে দূরত্ব ৩৮০ কিলোমিটার আর বরিশাল থেকে ১০৮ কিলোমিটার।

কুয়াকাটার নামটি এসেছে ‘কুয়া’ বা ‘কূপ’ থেকে। লোকমুখে শোনা যায়, ১৮ শতকে আরাকান (বর্তমান মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ) থেকে বিতাড়িত হয়ে বহু লোক এই অঞ্চলে বসবাস শুরু করে। তারা খাওয়ার পানির জোগান দিতে অসংখ্য কূপ বা কুয়া খনন করে। এ জন্যই জায়গাটির নাম কুয়াকাটা।

 

কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকতের কাছেই কেরানীপাড়া। সেখানে গেলে রাখাইনপল্লী চোখে পড়বে। সেখানকার বৌদ্ধ মন্দিরের কাছেই বহু পুরনো একটি কূপ আছে। সমুদ্রসৈকত, ম্যানগ্রোভ বন ছাড়াও দর্শনীয় অনেক জায়গা আছে কুয়াকাটায়।



মন্তব্য