kalerkantho


অষ্টম শ্রেণি : বাংলা প্রথম পত্র

বহু নির্বাচনী প্রশ্ন

লুত্ফা বেগম, সিনিয়র শিক্ষক বিএএফ শাহীন কলেজ কুর্মিটোলা, ঢাকা   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



অষ্টম শ্রেণি : বাংলা প্রথম পত্র

পদ্য

মানবধর্ম : লালন শাহ

১।         ‘কেউ মালা কেউ তসবি গলায়’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে?

            (ক) আপাতদৃষ্টিতে ধর্মভেদ                    (খ) জাত-ধর্ম বড় নয়

            (গ) হিন্দু-মুসলমান

            (ঘ) জাতি-ধর্ম

২।         ‘নানান বরণ গাভীরে ভাই একই ধরন দুধ

            জগৎ ভ্রমিয়া দেখিনু একই মায়ের পুত’—উক্ত চরণদ্বয়ে ‘মানবধর্ম’ কবিতার কোন ভাবটি প্রাসঙ্গিক?

            (ক) ধর্মের অসমতা                   (খ) জন্মের সীমাবদ্ধতা

            (গ) জাতের অখণ্ডতা                 (ঘ) মানুষের ভিন্নতা

৩।        লালন শাহর দর্শন প্রকাশ পেয়েছে কিসের মাধ্যমে?

            (ক) সাধনার                             (খ) অভিজ্ঞতার

            (গ) গানের                                (ঘ) জ্ঞানের

৪।        ‘মানবধর্ম’ কবিতায় কবি কোনটিকে জন্ম-মৃত্যুর সঙ্গে তুলনা করেছেন?

            (ক) বাজার                               (খ) জেতের ফাতা

            (গ) কূপজল                               (ঘ) যাওয়া-আসা

৫।        লালন শাহর গানে যে দর্শন প্রকাশ পেয়েছে তার মূল সুর কী?

            (ক) হিন্দু-মুসলমানের মিলন                  (খ) মানবপ্রেম

            (গ) অধ্যাত্ম ভাব                                   (ঘ) বৈষম্য দূরীকরণ

৬।        কোনটি লালন শাহর গানের বিষয়বস্তু নয়?

            (ক) অধ্যাত্ম ভাব ও মরমি রসব্যঞ্জনা (খ) অসাম্প্রদায়িকতা

            (গ) সাম্প্রদায়িকতা ও স্বজাত্যবোধ        (ঘ) মানবতাবাদ

৭।         ‘চারি পাশে তার জমিল লোকের ভিড়

            বলিয়া উঠিল একজন আরে

            এ যে মেথরের ছেলে,

            ইহার জন্য বে-আকুফ তুমি

            তাজা প্রাণ দিতে গেলে?’

            উদ্দীপকের ভাবার্থের বৈপরীত্য দেখা যায় নিচের কোন কবিতায়?

            (ক) নদীর স্বপ্ন                           (খ) মানবধর্ম

            (গ) দুই বিঘা জমি                     (ঘ) পাছে লোকে কিছু বলে

৮।        লালন শাহর গানের বৈশিষ্ট্য কী?

            (ক) প্রাকৃতিক সৌন্দর্যবোধ                    (খ) অধ্যাত্ম ভাব ও মরমি রসব্যঞ্জনা

            (গ) প্রকৃতি ও মানুষের সম্পর্ক    (ঘ) বাস্তবচিন্তা ও সমাজচেতনা

৯।         ‘মূলে এক জল’ চরণে লালন শাহ ‘জল’ বলতে কী বুঝিয়েছেন?

            (ক) ধর্ম            (খ) বংশ

            (গ) জাত           (ঘ) পবিত্রতা

১০।       ‘মূলে এক জল, সে যে ভিন্ন নয়’ চরণের পূর্বের চরণ কোনটি?

            (ক) তাইতে কী জাত ভিন্ন বলায়           (খ) গর্তে গেলে কূপজল কয়

            (গ) গঙ্গায় গেলে গঙ্গাজল হয়                  (ঘ) ভিন্ন জানায় পাত্র অনুসারে

১১।

      ‘মানবধর্ম’ কবিতায় প্রকাশ পেয়েছে কবির—

            (ক) স্বাজাত্যবোধ                                  (খ) মনুষ্যত্ববোধ

            (গ) দেশপ্রেম                              (ঘ) প্রকৃতিপ্রেম

১২।       লালন শাহ কোন কোন ধর্মশাস্ত্র সম্পর্কে বিশেষ জ্ঞান অর্জন করেন?

            (ক) হিন্দি ও সংস্কৃতি                  (খ) বাংলা ও ইংরেজি

            (গ) হিন্দু ও মুসলিম                   (ঘ) হিন্দু, মুসলিম ও খ্রিস্টান

১৩।      লালন শাহর ‘মানবধর্ম’ কবিতার উদ্দেশ্য হিসেবে নিচের কোনটি গ্রহণযোগ্য?

            (ক) জাতপাত নিয়ে বাড়াবাড়ি থেকে বিরত থাকা

            (খ) ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি থেকে বিরত থাকা

            (গ) মিথ্যা গর্ব করা থেকে বিরত থাকা

            (ঘ) সবই

১৪।       লালন জেতের ফাতা সাত বাজারে বিকিয়েছেন কেন?

            (ক) প্রয়োজন নেই বলে              (খ) ক্ষতিকারক বলে

            (গ) তুচ্ছতম বলে                                  (ঘ) গুরুত্বহীন বলে

১৫।       ‘জেতের ফাতা’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে?

            (ক) মানুষের পরিচয়                 (খ) জাতের পরিচয়

            (গ) জাতের বড়াই                     (ঘ) বংশগৌরব

১৬।      লালন শাহ কোথায় মৃত্যুবরণ করেন?

            (ক) কুষ্টিয়ায়                             (খ) চুয়াডাঙ্গায়

            (গ) মেহেরপুরে                          (ঘ) ঝিনাইদহে

১৭।       গঙ্গাজল হিন্দুদের কাছে কিসের প্রতীক?

            (ক) দেবতার প্রতীক                  (খ) সমৃদ্ধির প্রতীক

            (গ) পবিত্রতার প্রতীক                (ঘ) বৈধব্যের প্রতীক

১৮।      মানুষের মর্যাদা নষ্ট হয় কিসের             কারণে?

            (ক) সম্পদের কারণে                 (খ) বুদ্ধির কারণে

            (গ) জাতের গর্বের কারণে                      (ঘ) অতি সাহসের কারণে

১৯।      মানুষের জন্য ক্ষতিকর কোন বিষয়টি?

            (ক) ধর্মীয় গোঁড়ামি                  (খ) ধর্ম

            (গ) প্রগতিশীলতা                                  (ঘ) সম্পদ

২০।       মানুষে মানুষে পার্থক্য কিভাবে আরোপিত হয়?           

            (ক) স্বার্থান্বেষী মানুষের কৃত্রিম পন্থায় জাত-ধর্ম সৃষ্টির মাধ্যমে

            (খ) আচার-আচরণ পারিবর্তনের কারণে

            (গ) রাষ্ট্র কর্তৃক আরোপিত নিয়ম-কানুনের মাধ্যমে

            (ঘ) জাতিসংঘ কর্তৃক বিভাজিত নীতির মাধ্যমে

২১।       মানুষ সমাজে কিভাবে শান্তি বজায় রাখতে পারে?

            (ক) অন্য জাত-ধর্ম-বর্ণের মানুষের প্রতি সহানুভূতিশীল হওয়ার মাধ্যমে

            (খ) পুলিশ বাহিনীকে সহযোগিতা করার মাধ্যমে

            (গ) শন্তিরক্ষা কমিটি গঠন করার মাধ্যমে

            (ঘ) জীবে দয়া করার মাধ্যমে

২২।       বর্ণগত পার্থক্য কিভাবে সৃষ্টি হয়?

            (ক) সাম্প্রদায়িক মানসিকতা থেকে       (খ) মানুষের দ্বারা

            (গ) কর্মানুসারে                                     (ঘ) সম্পদ দ্বারা

২৩।      মানুষ কিভাবে নিজেকে মানুষ হিসেবে প্রমাণ করতে পারে?

            (ক) অন্যের প্রতি সহানুভূতিশীল ও সমদৃষ্টিসম্পন্নতার মাধ্যমে

            (খ) জাত-ধর্ম-বর্ণের গর্বের মাধ্যমে      

            (গ) ক্ষমতা প্রদর্শন করার মাধ্যমে

            (ঘ) ভালো ভালো বক্তব্য উপস্থাপনের মাধ্যমে

২৪।       মানুষের মধ্যে পার্থক্য কিভাবে সৃষ্টি হয়েছে?

            (ক) মানুষ কৃত্রিমভাবে এ পার্থক্য সৃষ্টি করেছে

            (খ) সৃষ্টিকর্তা পার্থক্য করেই মানুষ প্রেরণ করেছেন

            (গ) প্রকৃতি নিজেই পার্থক্য সৃষ্টি করেছে

            (ঘ) জন্মের সময় আপনা-আপনি পার্থক্য সৃষ্টি হয়েছে

২৫।       প্রকৃতপক্ষে সব মানুষের জীবন কী রকম?

            (ক) দীর্ঘস্থায়ী                            (খ) বৈচিত্র্যময়

            (গ) বৈষম্যমূলক                                    (ঘ) একসূত্রে গাঁথা

২৬।      ‘মানবধর্ম’ কবিতায় প্রকাশ পেয়েছে—

            (ক) সহানুভূতিশীলতা                (খ) অসাম্প্রদায়িকতা

            (গ) ধর্মানুভূতি                          (ঘ) অধ্যাত্ম ভাব

২৭।       ‘মানবধর্ম’ কবিতায় স্তবক সংখ্যা কয়টি?

            (ক) দুটি            (খ) তিনটি

            (গ) চারটি         (ঘ) পাঁচটি

২৮।      ‘মানবধর্ম’ কবিতার মূল কথা কী?

            (ক) জাতি ধর্ম                           (খ) মনুষ্য ধর্ম

            (গ) সমাজ ধর্ম                          (ঘ) লোক ধর্ম

২৯।       ‘মানবধর্ম’ কবিতার প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে—

            i) অসাম্প্রদায়িকতা                   ii) লালন শাহর জীবন কাহিনি

            iii) মানবতাবোধ

            নিচের কোনটি সঠিক?

            (ক) i ও ii          (খ) ii ও iii       

            (গ) i ও iii                                 (ঘ) i, ii ও iii

৩০।      লালনের মতে মানুষের জন্য ক্ষতিকর হলো—

            i) কূপের জল                             ii) জাতের বড়াই

            iii) বংশকৌলীন্য

            নিচের কোনটি সঠিক?

            (ক) i ও ii          (খ) i ও iii        

            (গ) ii ও iii         (ঘ) i, ii ও iii

৩১।      ‘জগৎ জুড়িয়া এক জাতি আছে,

             যে জাতির নাম মানুষ জাতি’—

            উক্ত বাক্যাংশে প্রকাশ পেয়েছে লালন শাহর—

            i) ধর্মের প্রতি অবিশ্বাস                         ii) অসাম্প্রদায়িক চেতনা

            iii) মানবতাবোধ

            নিচের কোনটি সঠিক?

            (ক) i ও ii                                  (খ) i ও iii        

            (গ) ii ও iii                                (ঘ) i, ii ও iii

৩২।      জন্মের সময় মানুষের ওপর চাপিয়ে দেওয়া হয়—

            i) বংশকৌলীন্য             ii) ধর্ম  

            iii) জাত

            নিচের কোনটি সঠিক?

            (ক) i                 (খ) i ও ii         

            (গ) ii ও iii        (ঘ) i, ii ও iii

৩৩।      লালন বিশ্বাস করেন না—

            i) প্রকৃতির সৃষ্টিরহস্যে                ii) জাত-ধর্মভেদে মানুষের ভিন্নতায়

            iii) মানবধর্মে

            নিচের কোনটি সঠিক?

            (ক) i                 (খ) ii   

            (গ) i ও iii         (ঘ) ii ও iii

 

            উত্তর : ১. ক ২. গ ৩. গ ৪. ঘ ৫. গ ৬. গ ৭. খ ৮. খ ৯. গ ১০. গ ১১. খ ১২. গ ১৩. ঘ ১৪. খ ১৫. খ ১৬. ক ১৭. গ ১৮. গ ১৯. ক ২০. ক ২১. ক ২২. খ ২৩. ক ২৪. ক ২৫. ঘ ২৬. খ ২৭. গ ২৮. খ ২৯. গ ৩০. গ ৩১. গ ৩২. ঘ ৩৩. খ।


মন্তব্য