kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জেএসসি প্রস্তুতি : বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র

মডেল টেস্ট, লুত্ফা বেগম সিনিয়র শিক্ষক বিএএফ শাহীন কলেজ কুর্মিটোলা, ঢাকা   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



জেএসসি প্রস্তুতি : বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র

প্রথম পত্র

সৃজনশীল প্রশ্ন

 

     মান : ৬০

     সময় : ২ ঘণ্টা ২০ মিনিট

     [দ্রষ্টব্য : উদ্দীপকগুলো মনোযোগ দিয়ে পড়ো এবং সংশ্লিষ্ট প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও। প্রতি বিভাগ থেকে কমপক্ষে একটি করে মোট ছয়টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।

একই প্রশ্নের উত্তরে সাধু ও চলিত ভাষা-রীতির মিশ্রণ দূষণীয়। প্রতিটি প্রশ্নের মান ১০ (১+২+৩+৪)]

 

ক বিভাগ : গদ্য

১।     নদীর কোলঘেঁষা বটতলায় হাজার হাজার মানুষ জমেছে। ছোট ছেলেমেয়েরা যেমন এটা-ওটা খেলনা কিনছে, তেমনি তাদের মা-বাবারাও কাঠের আসবাব, মসলাপাতি কিংবা তৈজসপত্র কিনছেন। আর একটু দূরে শোনা যাচ্ছে নাগরদোলার ক্যাঁচর ক্যাঁচর শব্দ। এ দিনটির জন্য আশপাশের গাঁয়ের মানুষেরা প্রায় বছরজুড়ে অপেক্ষায় থাকে।

     (ক) ‘ছায়ানট’ কী?        

     (খ) বাংলা সনের ইতিহাস সম্পর্কে ঐতিহাসিক ও পণ্ডিতদের ধারণা কী? ব্যাখ্যা করো।         

     (গ) উদ্দীপকে ‘বাংলা নববর্ষ’ রচনায় উল্লিখিত কোন সর্বজনীন উৎসবের পরিচয় রয়েছে? ব্যাখ্যা করো।  

     (ঘ) ‘উল্লিখিত উৎসব ব্যতীত বাঙালির আরো উৎসবের পরিচয় পঠিত রচনায় রয়েছে’—বক্তব্যের তাত্পর্য বিচার করো।     

২।     পরীক্ষা শেষে মা-বাবার সঙ্গে কক্সবাজার বেড়াতে এসেছে জাওয়াদ। সে শুনেছে সমুদ্রসৈকতে দূর-দূরান্ত থেকে অনেক লোক বেড়াতে আসে নয়নাভিরাম সৌন্দর্য উপভোগ করতে, বিশেষ করে সূর্যাস্তের মনোরম দৃশ্য উপভোগ করার জন্য সেখানে অনেক মানুষের ভিড় হয়। আজ বাস্তবে সৈকতে এসে সে দেখতে পেল রাবার বাগান, ডুলাহাজারার সাফারি পার্ক, বৌদ্ধ মন্দির, রাখাইনদের বার্মিজ মার্কেট, বাজার-ঘাটায় প্রচুর গলদা চিংড়ি।

     (ক) আরাকান রাজ্যের প্রাচীন ধ্বংসপ্রাপ্ত রাজধানীর নাম কী?     

     (খ) পাইক্যা কী? ব্যাখ্যা করো।        

     (গ) উদ্দীপকের ভ্রমণ কাহিনীর সঙ্গে ‘মংডুর পথে’ ভ্রমণ কাহিনীর যে দিক প্রকাশ পেয়েছে, তা তোমার নিজের ভাষায় লেখো।             

     (ঘ) ‘মংডুর পথে’ প্রবন্ধের লেখকের অনুভূতির সঙ্গে উদ্দীপকের জাওয়াদের অনুভূতি এক নয়’—প্রবন্ধের আলোকে বিশ্লেষণ করো।                

৩।     ব্যাটারিচালিত গাড়িচালক এমদাদ তার গাড়িতে টাকাভর্তি একটি মানিব্যাগ পেল। প্রথমে সে ভাবল, এই টাকা সে চুপচাপ রেখে দেবে। কিন্তু পরক্ষণেই তার মনে হলো কাজটা অন্যায়, অনুচিত। তাই সে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দিল যাতে প্রকৃত মালিক তার টাকাটা ফেরত পায়।

     (ক) ‘কাপালি’ শব্দের অর্থ কী?       (খ) ‘ওর মতো কত লোক আসবে?’—বিধুর এ কথাটির অর্থ বুঝিয়ে লেখো।             

     (গ) উদ্দীপকের এমদাদের সিদ্ধান্ত ‘পড়ে পাওয়া’ গল্পের যে দিকটির সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ তা ব্যাখ্যা করো।   

     (ঘ) ‘‘উদ্দীপকের এমদাদের মনোভাব ও ‘পড়ে পাওয়া’ গল্পের বালকদের অনুভূতি একই সূত্রে গাঁথা। ” উক্তিটির যথার্থতা বিচার করো।                       

খ বিভাগ : কবিতা

৪।     হরিনামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অত্যন্ত সৎ ও ন্যায়পরায়ণ ব্যক্তি। তিনি তাঁর এলাকার সবাইকে সমান চোখে দেখেন। এমনকি তাঁর বাড়ির চাকর চান মিয়ার কিছু জমি তাঁর জমির পাশে থাকলেও তিনি তা কিনে নিতে চান না বরং ওর জমির দিকে অন্য কেউ যাতে লোভের হাত বাড়াতে না পারে, সে দিকে তিনি খেয়াল রাখেন।

     (ক) কোন গ্রন্থের জন্য রবীন্দ্রনাথ নোবেল পুরস্কার লাভ করেন?         

     (খ) ‘তুমি মহারাজ, সাধু হলে আজ, আমি আজ চোর বটে। ’ উপেনের এ কথা বলার কারণ ব্যাখ্যা করো।

     (গ) চেয়ারম্যানের সঙ্গে ‘দুই বিঘা জমি’ কবিতার জমিদারের চারিত্রিক বৈসাদৃশ্য কী? ব্যাখ্যা করো।    

     (ঘ) ‘দুই বিঘা জমি’ কবিতার জমিদার যদি উদ্দীপকের চেয়ারম্যানের মতো হতেন, তবে উপেনের পরিণতি এমন

     হতো না’—বিশ্লেষণ করো।      

৫।     মনে কর যেন বিদেশ ঘুরে

     মাকে নিয়ে যাচ্ছি অনেক দূরে।

     তুমি যাচ্ছ পালকিতে মা চড়ে

     দরজা দুটো একটুকু ফাঁক করে।

     আমি যাচ্ছি রাঙা ঘোড়ার পরে

     টগবগিয়ে তোমার পাশে পাশে।

     (ক) বুদ্ধদেব বসু কোন জেলায় জন্মগ্রহণ করেন?            

     (খ) ছোট পাখিকে আকাশের মুখের তিল বলা হয়েছে কেন?      

     (গ) উদ্দীপকের কিশোরটির সঙ্গে ‘নদীর স্বপ্ন’ কবিতার বালকটির যে সাদৃশ্য আছে, তা তুলে ধরো।     

     (ঘ) “উদ্দীপকটি ‘নদীর স্বপ্ন’ কবিতার সমগ্র ভাব ধারণ করে না। ” উক্তিটির যথার্থতা নির্ণয় করো।

৬।     নওরিনদের বাসার পেছনে চৌধুরীদের বিশাল বাগান। সেই বাগানে ফলের গাছসহ নাম না জানা অনেক বৃক্ষরাজি রয়েছে। প্রতিদিন বাগানের পাখির কলকাকলিতে তার ঘুম ভাঙে। একদিন সকালে উঠে সে দেখল চৌধুরী সাহেব বহুতল বাসভবন তৈরির পরিকল্পনায় রাতারাতি বাগানের সব গাছ কেটে ফেলেছেন। এই দৃশ্য দেখে নওরিনের মন খুবই বিষণ্ন হয়ে গেল। পাখিরা আর এখানে ডাকবে না। এভাবেই হয়তো পৃথিবীর এ সবুজ অরণ্য শেষ হয়ে যাবে।

     (ক) কবি সুফিয়া কামালের স্মৃতিকথামূলক গ্রন্থের নাম কী?  

     (খ) মাটি অরণ্যের পানে চায় কেন?    

     (গ) উদ্দীপকটির সঙ্গে ‘জাগো তবে অরণ্য কন্যারা’ কবিতার সাদৃশ্য তুলে ধরো।     

     (ঘ) “নওরিনের বিষণ্নতার কারণ আর ‘জাগো তবে অরণ্য কন্যারা’ কবিতার কবির বিষণ্নতা যেন একই সূত্রে গাঁথা”—বিশ্লেষণ করো।        গ বিভাগ : আনন্দ পাঠ

৭।     কায়েস ও মামুন দুই ভাই হলেও দুজনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য ভিন্ন। কায়েস সাধ্যমতো অন্যের উপকার করে, বিপদে পাশে দাঁড়ায়। অন্যদিকে মামুন কী করে ধনী হবে, সে দিকেই তার খেয়াল। তাই তো মানুষকে বিপদে ফেলে অর্থ আদায়ে সে দ্বিধা করে না। গ্রামের সবাই কায়েসকে পছন্দ করে আর মামুনকে ঘৃণা করে।

     (ক) অ্যান্টনিও কোন দেশের সওদাগর ছিলেন?        

     (খ) বাসানিওকে ভাগ্যবান বলা হয়েছে কেন? ব্যাখ্যা করো।           

     (গ) উদ্দীপকের মামুনের সঙ্গে ‘মার্চেন্ট অব ভেনিস’ গল্পের যে চরিত্রের মিল রয়েছে, তা ব্যাখ্যা করো।  

     (ঘ) “উদ্দীপকটি ‘মার্চেন্ট অব ভেনিস’ গল্পের খণ্ডচিত্র মাত্র”—উক্তিটি মূল্যায়ন করো।       

৮।    ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে অসহায় বাঙালি নিজ দেশ ছেড়ে অন্য দেশে আশ্রয় গ্রহণ করতে বাধ্য হয়। স্বাধীনতার পর কেউ কেউ দেশে ফিরে আসে। কিন্তু মতিন মিয়া আর ফেরেনি। ৩০ বছর পর দেশের জন্য নাড়ির টান অনুভব করলে সে দেশে ফিরে আসে। দীর্ঘদিন পর আপনজনদের সান্নিধ্য তাকে অতীত জীবনে ফিরিয়ে নেয়।

     (ক) রিপভ্যান উইংকলের একমাত্র পোষা প্রাণীটির নাম কী?      

     (খ) রিপ অদ্ভুত লোকটির বোঝা ভাগাভাগি করে নিয়েছিল কেন?   

     (গ) উদ্দীপকের ঘটনাটির ‘রিপভ্যান উইংকল’ গল্পের সঙ্গে কতটা সাদৃশ্য রয়েছে? ব্যাখ্যা করো।

     (ঘ) ‘উদ্দীপকের মতিন মিয়া এবং গল্পের রিপভ্যান দুজনেরই পরিণতি এক কিন্তু প্রেক্ষাপট ভিন্ন’—মন্তব্যটি বিশ্লেষণ করো।              

৯।     সত্যদ্বীপের রাজার কোনো পুত্রসন্তান নেই বলে রাজার মনে ভারি দুঃখ। সেই দুঃখে তিনি দেশান্তরী হলেন। দেশান্তরী রাজা বনে ঘুরতে ঘুরতে এক ঋষির ধ্যান ভঙ্গের কারণ হন। রাগান্বিত ঋষি রাজার দুঃখের কথা শুনে পুত্রসন্তান লাভের বর দেন। তবে ঋষি এই বলে অভিশাপও দেন যে, রাজা যদি তাঁর পুত্রের ১২ দিন বয়সে ১২ বছরের কন্যার সঙ্গে বিয়ে না দেন তাহলে তাঁর পুত্র মারা যাবে।

     (ক) তাড়কা রাক্ষসীর পুত্রের নাম কী?                  

     (খ) অশ্বমেধ যজ্ঞ কী? বুঝিয়ে লেখো।              

     (গ) উদ্দীপকের রাজার সঙ্গে রাজা দশরথের সাদৃশ্য কোন দিক থেকে? ব্যাখ্যা করো।             

     (ঘ) “উদ্দীপকের রাজার সঙ্গে ‘রাজা দশরথের সাদৃশ্য থাকলেও ‘রামায়ণ-কাহিনী’ গল্পের বিষয়বস্তু ভিন্ন খাতে

     প্রবাহিত”—মন্তব্যটি বিশ্লেষণ করো।

 

দ্বিতীয় পত্র

অনুচ্ছেদ : ট্রেনে ভ্রমণ

ভ্রমণ হলো এক স্থান থেকে অন্য স্থানে বেড়ানো বা পর্যটন। ভ্রমণের সঙ্গে জড়িয়ে আছে আনন্দ আর জ্ঞানের পিপাসা। অর্থাৎ ভ্রমণ মনে আনন্দ দেয় আর জানার পরিধি বাড়ায়।

সাধারণত স্থল, জল ও আকাশ—এ তিন পথে ভ্রমণ করা যায়। স্থলপথে বাস, সাইকেল, রিকশা, ট্যাক্সি ইত্যাদি এবং জলপথে নানাভাবে ভ্রমণ করা যায়। তবে দীর্ঘ পথ ভিন্ন রকম অভিজ্ঞতা ও ক্লান্তিহীনভাবে ভ্রমণের জন্য অনেকের পছন্দ ‘ট্রেন ভ্রমণ’। এতে পথে অনেক স্টেশন থাকায় নানা স্টেশনে বিচিত্র মানুষের সঙ্গে ক্ষণিক দেখা হওয়ার সুযোগ হয়।

সাধারণত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছুটির সময় পারিবারিকভাবে ট্রেন ভ্রমণের সুযোগ হয় অনেকের। ট্রেন বিভিন্ন স্টেশনে থামলে ব্যস্ততার সঙ্গে লোকজনের ওঠানামা দেখা যায়। বিভিন্ন পেশার লোকদের ফেরি করতেও দেখা যায় স্টেশনগুলোতে। নানা রকম খাবার, বিস্কুট, চানাচুর, আইসক্রিম ইত্যাদি ফেরি করে তারা। এ ছাড়া লোকাল ট্রেনগুলোতে ভিক্ষুক শ্রেণির লোকদের গানের সুরে সুরে ভিক্ষাবৃত্তি করেতে দেখা যায়। তারা বেশির ভাগই বিনা টিকিটে ট্রেনে উঠে পড়ে।

জানালার পাশে বসলে নদ-নদী, ফসলের মাঠ, বিভিন্ন ব্রিজ যেমন দেখা যায়, তেমনি বিভিন্ন স্টেশনের নামধাম ও ভৌগোলিক জ্ঞানও অর্জন করা যায়।

এককথায় ট্রেনে ভ্রমণ করলে যেমন বিচিত্র মানুষের সাক্ষাৎ মেলে, তেমনি বিচিত্র স্থান ও স্থাপনার দর্শন আমাদের মনে নানা জিজ্ঞাসার জন্ম দেয়। সুন্দর-শ্যামল বাংলাদেশ দেখার মাধ্যমে আমাদের মনে দেশপ্রেম প্রবল হয়ে ওঠে।


মন্তব্য