kalerkantho


দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয়

সংবাদ সম্মেলনে ইতিবাচক প্রধানমন্ত্রী

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



দেশকে এগিয়ে নেওয়ার প্রত্যয়

গত ৩০ ও ৩১ আগস্ট নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডুতে অনুষ্ঠিত চতুর্থ বিমসটেক শীর্ষ সম্মেলনে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিমসটেক সম্মেলনের নানা বিষয় অবহিত করতে গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে লিখিত বক্তব্যে বিমসটেক সম্মেলনের নানা দিক তুলে ধরে লিখিত বক্তব্য দেন। এরপর প্রশ্নোত্তর পর্বে স্বাভাবিকভাবেই উঠে আসে দেশের সাম্প্রতিক নানা প্রসঙ্গ। একাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে দেশের রাজনীতিতে নানা মেরুকরণ শুরু হয়েছে। সংগত কারণেই এসব বিষয়ে সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে নানা প্রশ্ন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী এসব প্রশ্নের খোলামেলা উত্তর দেন। রবিবারের সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য ছিল ইতিবাচক। দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি, অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলেন তিনি।

চলতি বছরের শেষার্ধেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা অনেক আগেই বলেছেন, এবারের নির্বাচন হবে সব দলের অংশগ্রহণে। সব দলের অংশগ্রহণে একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সবারই লক্ষ্য। কিন্তু বিএনপি সম্প্রতি তাদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে নির্বাচনে অংশগ্রহণের শর্ত হিসেবে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি করেছে। নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণের বিষয়ে দলগুলোরও যে রাজনৈতিক দায়িত্ব আছে, সে কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। উচ্চারণ করেছেন, ‘আমরা আর অনির্বাচিত সরকারের হস্তক্ষেপ দেখতে চাই না।’ অন্যদিকে একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন বা ইভিএম ব্যবহার নিয়ে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। একটি পক্ষ ইভিএম ব্যবহারকে দেখছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার হিসেবে। অন্যপক্ষ মনে করছে এই যন্ত্রের মাধ্যমে ডিজিটাল জালিয়াতি করা হবে। ইভিএম সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অত্যন্ত ইতিবাচক। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তিনি ইভিএম ব্যবহারের পক্ষে, তবে তা চাপিয়ে দেওয়া ঠিক হবে না। প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের পর ইভিএম নিয়ে রাজনৈতিক উত্তেজনা কমবে বলে আশা করা যায়। দেশের উন্নয়ন ও আগামী দিনের বাংলাদেশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী যে কথা বলেছেন, তাতে একজন দূরদর্শী নেতাকে খুঁজে পাওয়া যায়, আগামী ১০০ বছরে বাংলাদেশ কোন পর্যায়ে যেতে পারে, সেই পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন তিনি। এর আগে নির্বাচনী ইশতেহারে দিনবদলের সনদ দেওয়া হয়েছিল। ২০২১ থেকে ২০৪১ সাল পর্যন্ত কী করা হবে, দেশকে কোন পর্যায়ে উন্নীত করা হবে তার পরিকল্পনা দেওয়া হচ্ছে। দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে ডেল্টা প্ল্যান ২১০০ হাতে নেওয়া হচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন তিনি।  

সব দিক দিয়ে বিশ্লেষণ করলে রবিবারের সংবাদ সম্মেলনটি ছিল অনেক পরিপক্ক ও তাৎপর্যপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রী এখানে যেমন তাঁর রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরতে পেরেছেন, তেমনি উন্নত বাংলাদেশের একটি ছবিও তুলে ধরেছেন। বিশেষ করে আগামী সংসদ নির্বাচন নিয়ে তিনি তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করেছেন।



মন্তব্য