kalerkantho

ছিনতাই বাড়ছেই

নিয়ন্ত্রণে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিন

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



রাজধানীতে একের পর এক গুলি করে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে। এসব ঘটনায় প্রাণও যাচ্ছে অনেকের। অথচ অপরাধীরা ধরা পড়ছে না। পুলিশ অপরাধীদের খুঁজে বের করতে এবং অপরাধ প্রমাণ করতে চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে চলেছে। আর ছিনতাই ঠেকানোর তো প্রশ্নই ওঠে না। ফলে দিন দিন ছিনতাই বেড়েই চলেছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা যায়, রাজধানীতে গত তিন বছরে দুই ডজনেরও বেশি বড় ধরনের ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৪ সালের ৭ ডিসেম্বর মিরপুরের ব্যস্ত রাস্তায় ৯০ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছিল। গুলি করতে করতে পাঁচ মিনিটের মধ্যে টাকা ছিনতাই করে দুর্বৃত্তরা নির্বিঘ্নে চলে গিয়েছিল। আহত হয়েছিল টাকা বহনকারী গাড়িচালক। ২২ মাসেও পুলিশ সেই অপরাধীদের শনাক্ত করতে পারেনি।

আড়াই মাস আগে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেওয়া হয়েছে। এ রকম পরিণতি হয় ছিনতাইসংক্রান্ত অনেক মামলারই। আবার দুর্বল তদন্ত প্রতিবেদন ও সাক্ষ্য-প্রমাণের অভাবেও অনেক মামলায় কাঙ্ক্ষিত ফল পাওয়া যায় না। গুরুতর অপরাধ করেও অপরাধীরা ছাড়া পেয়ে যায়। ফলে অপরাধীরা আরো উৎসাহিত হয়। বেড়ে যায় অপরাধ সংঘটনের মাত্রা ও হার।

পুলিশ বা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলোর এমন দুর্বলতা কেন? অপরাধ বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, পুলিশের কাজের সঠিক নজরদারি হচ্ছে না। অনেক পুলিশ সদস্যই নাগরিক নিরাপত্তা রক্ষার বদলে ব্যক্তিগত লাভের দিকে বেশি মনোযোগী। তদন্ত কাজে প্রয়োজনীয় মনোযোগ বা শ্রম দেওয়া হয় না। আবার উপযুক্ত নজরদারির অভাবে পুলিশ-অপরাধী সখ্যও বাড়ছে। ছিনতাইয়ের ঘটনার সঙ্গে ‘বখরা বাণিজ্য’ যুক্ত আছে বলেও শোনা যায়। এমন হলে সেই পুলিশ সদস্যদের দিয়ে অপরাধ দমনের প্রচেষ্টা কতটুকু কার্যকর হবে?

নাগরিকদের দেওয়া অর্থেই রাষ্ট্র বা সরকার পরিচালিত হয়। রাষ্ট্র মৌলিক অধিকারগুলোর নিশ্চয়তা দেবে—এমন প্রত্যাশায়ই নাগরিকরা রাষ্ট্রকে সেই অর্থ দেয়। এই অধিকারগুলোর অন্যতম হচ্ছে নিরাপদে জীবন যাপন করার বা নিরাপত্তা পাওয়ার অধিকার। তাই পুলিশের এই ব্যর্থতার দায় রাষ্ট্রকেও নিতে হবে। তা সত্ত্বেও জননিরাপত্তায় নিয়োজিত পুলিশ বাহিনীর দুর্বলতাগুলো দূর করার উদ্যোগ কেন নেওয়া হচ্ছে না? কেন মাঠপর্যায়ে পুলিশের কর্মকাণ্ড সঠিক নজরদারিতে আনা যাচ্ছে না?

আমরা জানি, এ দেশে জনসংখ্যার তুলনায় পুলিশের সংখ্যা অনেক কম। আধুনিক সরঞ্জাম বা রসদের ঘাটতি রয়েছে। সুযোগ-সুবিধাও কম। কিন্তু যতসংখ্যক পুলিশ আছে, যে পরিমাণ রসদ বা সুযোগ-সুবিধা রয়েছে, তার সর্বোত্তম ব্যবহার হচ্ছে কি? হয়নি বলেই নিরাপত্তা পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপের দিকে যাচ্ছে। আমরা চাই, জননিরাপত্তা রক্ষায় যা যা করা প্রয়োজন, দ্রুত তা করা হোক।

 


মন্তব্য