kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জঙ্গিবিরোধী অভিযানে সাফল্য

সর্বসাধারণকেও এগিয়ে আসতে হবে

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



জঙ্গিবিরোধী অভিযানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উত্তরোত্তর সাফল্য আশাব্যঞ্জক। হলি আর্টিজানে হামলার পর জঙ্গিবিরোধী অভিযানে আসতে থাকে আশাতীত সাফল্য।

মাস্টারমাইন্ড তামিম ও জাহিদের পর এবার ঘায়েল হয়েছে আরেক জঙ্গি নেতা  জামশেদ হোসেন ওরফে আবদুল করিম। আহত অবস্থায় ধরা পড়েছে জাহিদের স্ত্রীও। তারা ব্যবসায়ী পরিচয়ে আজিমপুরে বাসা ভাড়া নিয়ে আত্মগোপন করে ছিল।

তার পরও স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই আমাদের। কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের নিখোঁজ ৫৩ শিক্ষার্থীর তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। দেশের আরো অনেক প্রতিষ্ঠানের উল্লেখযোগ্যসংখ্যক তরুণের খোঁজ নেই। উগ্রবাদী চিন্তার প্রসার ঘটায় সন্দেহভাজন এমন অনেক প্রতিষ্ঠান তো আছেই। তাই জঙ্গিবাদের সব উৎস সমূলে উত্পাটন না হওয়া পর্যন্ত আত্মতুষ্টির অবকাশ নেই।

মেজর (অব.) জাহিদ নিহত হওয়ার পর থেকে তার স্ত্রী জেবুন্নাহার শিলাকে খোঁজা হচ্ছিল। জঙ্গি আবদুল করিম ও শিলা এই রাজধানীতেই পরিচয় গোপন করে বাসা ভাড়া নিতে সক্ষম হয়। অর্থাৎ পরিচয় নিশ্চিত না হয়ে বাসা ভাড়া দেওয়া যাবে না—পুলিশের এই নির্দেশনা অনেকে মানছেন না! আজিমপুরের অভিযানে জঙ্গিদের তিন শিশুসন্তান উদ্ধার হয়েছে। জঙ্গিরা বাড়িভাড়া নেওয়ার সময় বাড়িওয়ালার সন্দেহ এড়াতে এই শিশুদের ব্যবহার করেছে। তারা নিজেদের সন্তানদের উপস্থিতিতে জঙ্গি কর্মকাণ্ড পরিচালনার পরিকল্পনা করে গেছে। ভুল আদর্শ মানুষকে এতটাই অন্ধ করে ফেলে!

আজ অভিভাবক, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ থেকে শুরু করে সমাজের প্রতিটি মানুষকে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে হবে। অভিভাবকরা যখন মেধাবী সন্তানদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন তখন ছেলেমেয়েরা ভুল আদর্শে নিজেদের সঁপে দিচ্ছে। কোন পরিবেশে, কারা মেধাবী তরুণ-তরুণীদের বিপথে টেনে নিচ্ছে? জঙ্গিবাদে উসকানিদাতা হিসেবে কোনো কোনো এনজিওর নামও উঠে আসছে। তার মানে নজরদারিতে আমাদের বড় ত্রুটি রয়েছে।

সাধারণ মানুষকে এখন বুঝতে হবে, জঙ্গিরা অন্ধবিশ্বাসে ইসলাম থেকে অনেক দূরে সরে এসেছে। বিদেশি জঙ্গি সংগঠনের পাশাপাশি একাত্তরের পরাজিত শক্তিও তাদের হীনস্বার্থে জঙ্গিবাদকে ব্যবহার করছে। অস্ত্র ও প্রশিক্ষণ দিয়ে, অর্থ জুগিয়ে তাদের দেশ ও জাতির বিরুদ্ধে উসকে দেওয়া হচ্ছে। পথভ্রষ্ট তরুণ-তরুণীদের সঠিক পথে ফিরিয়ে আনা, সব ষড়যন্ত্র গুঁড়িয়ে দেওয়া—এ কাজে ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার বিকল্প নেই। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দক্ষতা ও সাহসিকতার সঙ্গে জঙ্গিবাদ মোকাবিলা করছে। তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে সাধারণ মানুষকেও। জঙ্গিবাদ প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে উসকে দিতে পারে এমন সব মহলের ব্যাপারেই আমাদের এখন সজাগ থাকতে হবে।


মন্তব্য