kalerkantho

তনু হত্যাকাণ্ড

অবিলম্বে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই

২৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। অর্থনীতির সব সূচক ঊর্ধ্বগামী। শিক্ষা ক্ষেত্রে অসামান্য সব সাফল্য অর্জিত হয়েছে। কিন্তু মানবিক দিক থেকে কতটুকু এগিয়েছি আমরা। কুমিল্লার কলেজ ছাত্রী তনু ধর্ষণ ও হত্যার পর এ প্রশ্ন আবার নতুন করে আমাদের সামনে এসে পড়েছে। আমাদের সমাজ কি আগের মতোই অন্ধকারে রয়ে গেছে? কুমিল্লার কলেজ ছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যার ঘটনা আমাদের কী ইঙ্গিত দিচ্ছে? তনু খুব ধনাঢ্য পরিবারের সন্তান নন। পরিবারের অসচ্ছলতার কারণে টিউশনি করতেন। লেখাপড়ার পাশাপাশি নাটকের দলের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। অর্থাৎ দরিদ্র পরিবারের সদস্য হয়েও তনু আলোকিত মানুষ হিসেবেই গড়ে উঠছিলেন। তাঁর আলোর পথযাত্রা চিরদিনের মতো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গত রবিবার অন্যান্য দিনের মতো টিউশনি করতে গিয়েছিলেন তনু। ছাত্রের বাসা থেকে বেরিয়েছিলেন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়। তাঁর আর ঘরে ফেরা হয়নি। অনেক রাতে বাসার পাশের একটি কালভার্টের কাছ থেকে মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন বাবা। এর চেয়ে বেদনার দৃশ্য আর কী হতে পারে?

আমাদের সমাজব্যবস্থা আগের মতোই রয়ে গেছে। এখানে অনেকের কাছে নারী পণ্য। কারো কারো মতে, নারী ঘরের শোভা। নারী শিক্ষা, নারীর অগ্রযাত্রা এখনো অনেকে মেনে নিতে পারে না। সেই সঙ্গে একশ্রেণির কু-মনোবৃত্তির মানুষ নারীকে শুধুই ভোগের সামগ্রী মনে করে। এ দেশে নারী নিরাপত্তা কি আদৌ আছে? নববর্ষের দিন জনাকীর্ণ এলাকায় নিপীড়নের শিকার হয় নারী। যানবাহনে নারী নিগ্রহের ঘটনা ঘটে। রাজধানীতে মাইক্রোবাসে তুলে ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর নারীকে ধর্ষণ করা হয়। বাসে ধর্ষণের শিকার হয় নারী। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে বিচারব্যবস্থার দীর্ঘসূত্রতা। দেশে কোনো ধর্ষণের ঘটনা ঘটলেই তা নিয়ে আলোচনা হয়। প্রতিবাদ হয়। নিয়ম মেনে থানায় মামলা হয়। কিন্তু দ্রুত বিচার হচ্ছে না। কখনো কখনো ধর্ষকদের আড়াল করার চেষ্টাও তো করা হয়। তদন্তের দীর্ঘসূত্রতায় কত মামলা যে পথ হারিয়েছে, তার হিসাব কে রাখে? যদি দেশে সব নারী নির্যাতনের দ্রুত বিচার হতো, অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক বা কঠোর শাস্তি হতো, তাহলে হয়তো অপরাধীরা নতুন করে অপরাধ করতে সাহসী হতো না। অপরাধ করে কেউ পার পেয়ে গেলে নতুন অপরাধীরা উৎসাহ পায়। তনুকে যারা ধর্ষণ করেছে, হত্যা করেছে, তারাও হয়তো বিচারহীনতার সংস্কৃতি থেকেই উৎসাহিত হয়েছে।

সোহাগী জাহান তনু হত্যার ঘটনাটি আমাদের নতুন করে পুরনো প্রশ্নের মুখোমুখি করেছে। আমরা এই সমাজকে নারীর জন্য কতটা নিরাপদ ও সুরক্ষিত করতে পেরেছি? আমরা তনু হত্যার বিচার চাই। আর কোনো তনু যেন এমন নির্মমতার শিকার না হয়, সেই পরিবেশ নিশ্চিত করতে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।


মন্তব্য