এসইজেডে বিনিয়োগ-332988 | সম্পাদকীয় | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭

এসইজেডে বিনিয়োগ

শিল্প খাতে জ্বালানি ও বিদ্যুত্ নিশ্চিত করুন

৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য নতুন বিনিয়োগের বিকল্প নেই। নতুন নতুন শিল্প-কারখানা গড়ে উঠলে অর্থনীতির চাকায় গতি আসবে। রপ্তানি বাণিজ্যের পাশাপাশি দেশের অভ্যন্তরে নতুন পণ্যবাজার সৃষ্টি হবে। বাংলাদেশের অর্থনীতিতে তৈরি পোশাকশিল্প বিশেষ স্থান দখল করেছে। রপ্তানি বাণিজ্যের সিংহভাগজুড়ে রয়েছে তৈরি পোশাক খাত। দেশের বিভিন্ন রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলে স্থাপিত শিল্পে দেশের শ্রমশক্তি কাজে লাগানো হচ্ছে। সরকার আরো ইপিজেড গড়ে তুলতে আগ্রহী। বিশেষায়িত অর্থনৈতিক জোন গড়ে তুলতে এগিয়ে এসেছে সরকার। এসব বিশেষায়িত অর্থনৈতিক জোন বা এসইজেড ও ইপিজেডে নতুন শিল্প-কারখানা গড়ে উঠলে দেশের অর্থনীতিতে জোয়ার আসবে। বিনিয়োগের ক্ষেত্র হিসেবে বাংলাদেশ এখন আদর্শ স্থান হিসেবেই বিবেচিত হচ্ছে। বিদেশিরাও বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। আগে যে রাজনৈতিক অস্থিরতা ছিল তা এখন নেই। কিন্তু বিনিয়োগের বড় বাধা হয়ে রয়েছে অবকাঠামো বা দুর্বল যোগাযোগব্যবস্থা। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে গ্যাস ও বিদ্যুতের অভাব। গ্যাস ও বিদ্যুত্ সংযোগ সহজতর করে নিরবচ্ছিন্ন সংযোগ নিশ্চিত করতে না পারলে শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহ সৃষ্টি করা যাবে না। বিশেষ করে বিদেশি বিনিয়োগ নিশ্চিত করতে হলে অবশ্যই কিছু আগাম শর্ত পূরণ করতে হবে। ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি মিলনায়তনে ভবিষ্যতের বিনিয়োগ নিয়ে অনুষ্ঠিত এক সেমিনারে বিনিয়োগের বাধা প্রসঙ্গে আলোচনাই মুখ্য হয়ে ওঠে। আলোচনায় বলা হয়েছে, গ্যাস ও বিদ্যুত্ সংযোগ না পাওয়ায় চালু করা সম্ভব হচ্ছে না, দেশে এমন শিল্পের সংখ্যা দুই হাজার। এই দুই হাজার শিল্পে গ্যাস ও বিদ্যুত্ সংযোগ নিশ্চিত করা গেলে সেখানে এরই মধ্যে উত্পাদন শুরু করা যেত। কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হতো।  

ওই সেমিনারে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানিবিষয়ক উপদেষ্টা বলেছেন, বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ করলে গ্যাস ও বিদ্যুতের নিশ্চয়তা পাওয়া যাবে। এটাও ঠিক যে দেশের বিভিন্ন স্থানে অনেক শিল্প গড়ে উঠেছে পরিকল্পনাহীনভাবে। অনেক শিল্প-কারখানা করার আগে তার যথার্থতা যাচাই করা হয়নি। কিন্তু একটি বিশেষ এলাকায় শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা গেলে তার সুবিধা অন্য শিল্পের ওপরও পড়ে। একটি শিল্পকে কেন্দ্র করে ছোট ছোট অনেক শিল্প গড়ে উঠতে পারে। দেশে একটি শিল্পশৃঙ্খলাও গড়ে ওঠে, যা ভবিষ্যতের জন্য কার্যকর ও জরুরি।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য শিল্পায়ন গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু শিল্পায়ন নিশ্চিত করতে যে শর্তগুলো পূরণ করতে হয়, তা নিশ্চিত করতে হবে। আমরা আশা করব, সব শর্ত পূরণ করেই দেশের শিল্প বিকশিত হবে।

মন্তব্য