kalerkantho


কিডনি সম্পর্কে জানুন

৪ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



কিডনি সম্পর্কে জানুন

♦ একজন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তির প্রতি কিডনিতে প্রায় ১০-১২ লাখ ছাঁকনি থাকে, যা প্রতি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০ লিটারের মতো রক্ত পরিশোধন করে। এই পরিশোধিত রক্তের মধ্যে এক থেকে তিন লিটার শরীরের বর্জ্য পদার্থ প্রস্রাবের আকারে বের হয়।

 

♦ রক্ত পরিশোধন ছাড়াও শরীরের রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ, রক্তস্বল্পতা দূর ও রক্ত তৈরিতে সাহায্য করা এবং ভিটামিন ‘ডি’ কার্যকর করায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে কিডনি।

 

♦ শরীর সুস্থ ও স্বাভাবিক রাখার জন্য একটি সুস্থ কিডনিই যথেষ্ট।

 

♦ কিডনি সম্পূর্ণ অকেজো হয়ে গেলে ডায়ালিসিস অথবা কিডনি সংযোজনই হলো বেঁচে থাকার একমাত্র উপায়।

 

কিডনি রোগ বা কিডনি বিকল হলে

♦ দুটি কিডনি ৮০-৯০ ভাগ অকেজো হওয়ার পরই শুধু ডায়ালিসিস বা কিডনি সংযোজনের মতো চিকিৎসার প্রয়োজন হয়।

 

♦ কিডনি রোগ ছোঁয়াছে নয়, তবে বংশানুক্রমিক হতে পারে।

 

♦ রক্তচাপ, প্রস্রাব পরীক্ষা এবং রক্তের ক্রিয়েটিনিন ও সুগার পরীক্ষা করেই জানা যায় কারো কিডনি রোগ আছে কি না।

 

সতর্কতা

♦ কারো বয়স যদি ৪০ বছরের ওপরে হয়, কেউ যদি ডায়াবেটিস বা উচ্চ রক্তচাপে ভুগে থাকেন অথবা বংশে যদি কারোর কিডনি রোগ থাকে, তবে অবশ্যই রক্ত ও প্রস্রাব পরীক্ষা করে জেনে নেওয়া দরকার যে কিডনি রোগ আছে কি না।

 

♦ যেসব রোগ কিডনিকে আক্রান্ত করে, এর কার্যকারিতা বিনিষ্ট করে বা কিডনি বিকল হয়, এসবের মধ্যে নেফ্রাইটিস, ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ প্রধান। সুতরাং প্রাথমিক পর্যায় থেকে এসব রোগের চিকিৎসায় যত্নবান হোন।

 

♦ ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ কিডনির কোনো রোগ নয়, তবুও কিডনিকে আক্রান্ত করে কিডনির কার্যকারিতা কমিয়ে মারাত্মক জটিলতার সৃষ্টি করতে পারে।

 



মন্তব্য