kalerkantho


ইমার্জেন্সি

শিশুর গলায় কিছু আটকে গেলে

অধ্যাপক ডা. প্রণব কুমার চৌধুরী

২১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



শিশুর গলায় কিছু আটকে গেলে

যেকোনো কিছু মুখে দেওয়ার প্রবণতা শিশুদের খুব বেশি। তারা হাতের কাছে যা পায় তা-ই মুখে ঢুকিয়ে দেয়। পয়সা বা কয়েন, বোতাম, আলপিন, মার্বেল ও অন্যান্য ছোটখাটো পদার্থ শিশুরা কৌতূহলবশত গিলে ফেলতে পারে। মানসিক প্রতিবন্ধী শিশুদের মধ্যে এ ধরনের সমস্যা বেশি দেখা যায়। এতে বিভিন্ন উপসর্গের মধ্যে শ্বাসরোধ ও বমি ভাব বা বমি হওয়া, মুখ দিয়ে লালা নির্গত হওয়া, গলায় বা বুকে ব্যথা, ঢোক গিলতে কষ্ট, স্বরভঙ্গ ইত্যাদি হয়ে থাকে।

সাধারণত ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে এসব বাহ্যিক পদার্থ খাদ্যনালির মুখে ক্রিকোফ্যারিনজিয়াল স্ফিনকট্যার বা বেষ্টনীর নিচে আটকে যায়। কখনো বা বেষ্টনীর মধ্যে দেখা যায়।

 

করণীয়

►      জরুরিভিত্তিতে হাসপাতালে ভর্তি করানো।

►      গলা, বুক পেটের এক্স-রে ছাড়াও প্রয়োজনে বেরিয়াম সোয়ালো বা গ্রাস প্রক্রিয়ায় এক্স-রে করে সমস্যা নির্ণয় করা।

►      অজ্ঞান করে ইসোফেগোসকোপির সাহায্যে বাহ্যিক পদার্থ বের করে আনা। আর যেসব বাহ্যিক পদার্থ পাকস্থলীতে চলে যায়, সেগুলো নিয়ে কোনো সমস্যা হয় না। সাধারণত এগুলো পায়খানার সঙ্গে বের হয়ে যায়। সমস্যা জটিল হলে শ্বাসকষ্ট, খাদ্যনালি ছিদ্র হওয়া, খাদ্যনালির পাশে ফোঁড়া ইত্যাদি হতে পারে।

         

সাবধানতা

►      ছোট তীক্ষ জিনিসপত্র ও বোতাম, মার্বেল, আলপিন, পয়সা ইত্যাদি শিশুর নাগালের বাইরে রাখুন।

►      শিশুর পরিচর্যা, খাওয়াদাওয়া ও খেলাধুলার সময় খেয়াল রাখুন।

 

লেখক : বিভাগীয় প্রধান

শিশু বিভাগ

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল।



মন্তব্য