kalerkantho


আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের উত্তর

গাইনিবিষয়ক বাছাই প্রশ্নের পরামর্শ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের গাইনি অ্যান্ড অবস্ বিভাগের অধ্যাপক শিরিন আক্তার বেগম

১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের উত্তর

সমস্যা-১ : আমার বয়স ৪০। ওজন ৬০ কেজি, উচ্চতা ৫ ফুট ৫ ইঞ্চি।

আমার ১৪ বছরের একটি মেয়ে আছে। বর্তমানে আরো সন্তান নিতে চাই। দ্বিতীয় বিবাহের কারণে আমার এই সন্তান নেওয়ার ইচ্ছা। মাঝে দুটি মিসক্যারেজ হয়। মাসিক নিয়মিত চলছে। আমার ডায়াবেটিস নেই, তবে উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে। এখন সন্তান নিতে চাইলে পরামর্শ কী?

রোকেয়া বেগম, হিজলা, বরিশাল

পরামর্শ : মেয়েদের সন্তান নেওয়া উচিত সাধারণত ২৫-৩৫ বছরের মধ্যে। এর আগে বা পরে সন্তান নিতে চাইলে সন্তানের জন্মগত ত্রুটির সম্ভাবনা থাকে। আবার অনেকে চাকরি, ব্যবসা বা পড়াশোনার কারণে ৩৫-এর পরে সন্তান নিতে চান।

এতে সন্তানের জন্মগত কিছু সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। তবে সন্তান নেওয়ার আগে প্রি-প্রেগনেন্সি কাউন্সেলিং করে কী কী সমস্যা রয়েছে তার চিকিৎসা করে সন্তান নিতে পারেন। তবে এ ক্ষেত্রেও কিন্তু আপনি ঝুঁকিমুক্ত নন। পারিবারিক শান্তি রক্ষার্থে যদি একান্তই সন্তানের প্রয়োজন হয়, তবে অবশ্যই একজন গাইনি বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেবেন।

সমস্যা-২ : আমার বয়স ৪৮ বছর। ওজন ৬২ কেজি,  উচ্চতা ৫ ফুট ১ ইঞ্চি।

দুই মাস ধরে আমার প্রস্রাবের রাস্তা বেশ চুলকাচ্ছে। আমি হালকা গরম পানি দু-এক ফোঁটা স্যাভলনের সঙ্গে ব্যবহার করছি, কিন্তু তেমন উপকার পাচ্ছি না। পরামর্শ দেবেন।   

শিলা রানী দাস সীতাকুণ্ড, চট্টগ্রাম

 

পরামর্শ : আপনি যদি বিবাহিত হয়ে থাকেন, তবে অবশ্যই চুলকানির পাশাপাশি আপনার জরায়ুর মুখে কোনো ইনফেকশন আছে কি না তা পরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে। আর চুলকানির জন্য জরায়ুর মুখে স্যাভলন পানি ব্যবহার করা একদমই উচিত নয়। ডাক্তারের পরামর্শমতো ওষুধ খেলে বা ব্যবহার করলে সুস্থ থাকবেন।

 

 

শারীরিক সমস্যায় প্রশ্ন পাঠান

আপনাদের শারীরিক নানা সমস্যা বা অসুখের কথা আমাদের লিখে পাঠান। আপনাদের বিভিন্ন সমস্যায় পরামর্শ দেবেন দেশের সেরা

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ।

 

চিঠি পাঠানোর ঠিকানা :

বিভাগীয় সম্পাদক, ডাক্তার আছেন

দৈনিক কালের কণ্ঠ, প্লট-৩৭১/এ, ব্লক-ডি

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা।

 

অথবা daktarachen@kalerkantho.com ঠিকানায় প্রশ্ন পাঠাতে পারেন।


মন্তব্য