kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

এসিটালোপ্রাম

৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



অ্যান্টি ডিপ্রেস্যান্ট বা বিষণ্নতার চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ। এটি সিলেকটিভ সেরোটোনিন রিআপটেক ইনহিবিটর গোত্রের ওষুধ।

বিষণ্নতায় মস্তিষ্কের ভেতরে রাসায়নিকের যে অসামঞ্জস্যতা তৈরি হয় তা ঠিক করতে ওষুধটি যথেষ্ট কার্যকরী। অনেক সময় উদ্বিগ্নতা নিয়ন্ত্রণেও এটি ব্যবহৃত হয়। ওষুধটি ১২ বছরের নিচের কাউকে দেওয়া যায় না। লিভারের অসুখ, মৃগী, খিঁচুনি, ডায়াবেটিস, ন্যারো অ্যাঙ্গেল গ্লুকোমা, হার্টের অসুখ, বাইপোলার ডিসঅর্ডার, আগে আত্মহত্যাচেষ্টার ইতিহাস থাকলে ওষুধটি সতর্কতার সঙ্গে প্রয়োগ করতে হয়। আবার যারা ইতিমধ্যে পিমোজাইড ও মিথিলিন ব্লু ওষুধ হিসেবে নিচ্ছেন তাদের ক্ষেত্রে এটি ব্যবহারবিরুদ্ধ। ওষুধটি সেবনে কারো কারো মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা তৈরি করে। বুকের দুধের মাধ্যমে শিশুর শরীরে যেতে পারে বলে দুগ্ধদানকালীন ওষুধটি সেবন না করা উচিত।

ডা. এ জেড এম আহসান


মন্তব্য