kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের উত্তর

শিশুবিষয়ক বাছাই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন ঢাকা শিশু হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগের অধ্যাপক ডা. আব্দুল আজীজ

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



আপনার প্রশ্ন বিশেষজ্ঞের উত্তর

আমার বাচ্চার বয়স দুই বছর। কিছুদিন হলো পায়খানা করার সময় ওর মলদ্বার বের হয়ে যায়।

আবার পায়খানা শেষ হলে আমি হাত দিয়ে ভেতরে ঢুকিয়ে দিই। আগে সামান্য বের হতো। এক সপ্তাহ হলো মলদ্বারের অনেকটাই বের হচ্ছে। আমি খুব টেনশনে আছি, কী চিকিৎসা আছে জানাবেন?

হালিমা আক্তার, নড়াইল।

বাচ্চদের দীর্ঘ সময় আমাশয়, রক্ত আমাশয় বা পাতলা পায়খানা হলে এবং শারীরিকভাবে দুর্বল হলে পায়খানা করার সময় পায়খানার রাস্তা বা মলদ্বার বের হয়ে যায়। এটাকে রেকটাল প্রলাপস বলে। এ ক্ষেত্রে বাচ্চার আমাশয়, রক্ত আমাশয় বা পাতলা পায়খানার চিকিৎসা করাতে হবে। বাচ্চার দুর্বলতার জন্য ভালো খাবার খাওয়াতে হবে এবং বাচ্চাকে নিচু কমোডে না বসিয়ে উঁচু কমোডে বসিয়ে পায়খানা করাতে হবে। তাহলে আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে।

 

আমার ছেলের বয়স ৯ বছর। দুই বছর বয়স থেকেই নিউরোলজিস্টের চিকিৎসাধীন আছে। এখন ডাক্তার দুই বছর পর চেকআপের জন্য নিয়ে আসতে বলছেন; কিন্তু বর্তমানে আমার ছেলের ফোঁটায় ফোঁটায় প্রস্রাব ঝরে, প্যান্ট ভিজিয়ে ফেলে। সারা দিনে সাত-আটটা প্যান্ট পাল্টাতে হয়, এই অবস্থায় কী করব?

আমিরুল হক, মুন্সীগঞ্জ।

বাচ্চাদের প্রস্রাবের রাস্তায় সমস্যা থাকলে অনেক সময় ফোঁটা ফোঁটা প্রস্রাব ঝরে। সে ক্ষেত্রে পোসটেরিওর উইরেথাল ভাল্ব, ইউরেটারোসিল ইত্যাদি থাকতে পারে। এ সমস্যার জন্য আপনি একজন ভালো শিশু ইউরোলজিস্টের কাছে যাবেন, তিনি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে চিকিৎসা করলে বাচ্চা ভালো হয়ে যাবে। তবে যেহেতু আপনার বাচ্চার নিউরোলজিক্যাল সমস্যা আছে, তার জন্যও কিছু ক্ষেত্রে প্রস্রাব আটকে না রাখার সমস্যা হতে পারে। সাধারণত মস্তিষ্কের সিএসএফের চাপ বাড়তি থাকলে এটা হয়। তাই চিকিৎসার সময় এটাও ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা করা উচিত।

 

আমার ছেলের বয়স ছয় বছর। ছোটবেলা থেকেই ওর একটি অণ্ডকোষ ছিল। আমরা তেমনভাবে গুরুত্ব দিইনি। কিন্তু আমি কয়েকজনের কাছে শুনেছি যে এর চিকিৎসা করা যায়। যদি সত্যি হয়, তাহলে আমি কি এখন আমার ছেলের চিকিৎসা করাতে পারব? আর এতে কি ও স্বাভাবিক ছেলেদের মতো হবে?

আনন্দ কুমার ঈশ্বরদী, পাবনা।

অনেক বাচ্চার জন্মের সময় টেসটিস (অণ্ডকোষ) ক্রোটানে (অণ্ডথলি) থাকে না। পেটের মধ্যে বা ওপরে থাকে। জন্মের ছয় মাসের মধ্যে অনেক সময় নিজে নিজে নেমে আসে। ছয় মাসের মধ্যে না নামলে

অপারেশনের মাধ্যমে নামানো যায় এবং বাচ্চা পুরোপুরি স্বাভাবিক জীবন যাপন করে। তবে আট বছরের মধ্যে অবশ্যই অণ্ডথলিতে নামাতে হবে। না হলে এই অণ্ডকোষের কারণে পরবর্তী সময়ে বাচ্চা জন্ম দেওয়ার ক্ষমতা পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।


মন্তব্য