kalerkantho


দুর্ভোগ

নেই ফুট ওভারব্রিজ : ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার

আজিমপুর বাস স্টপেজ

জহিরুল ইসলাম   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



নেই ফুট ওভারব্রিজ : ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার

আজিমপুর বাস স্টপেজ মোড়ে এভাবেই ঝুঁকি নিয়ে পথচারীদের রাস্তা পার হতে হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

একমাত্র শিশু সন্তানের হাত ধরে অগ্রণী স্কুলে নিয়ে যাচ্ছেন মা। রাস্তা পার হতে গিয়ে হঠাৎ বেটারিচালিত রিকশা এসে ধাক্কা দিলে পায়ে আঘাত পান মা নাজমা আক্তার। কথা হয় তার সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন এ পথ দিয়ে আমাকে যাওয়া-আসা করতে হয়। সবসময় সতর্ক থাকি। কিন্তু এতো বেপরোয়া ভাবে গাড়ি চলে যে সতর্কতাতেও কাজ হয় না।’ প্রতিদিন এ রকম একাধিক ঘটনা ঘটছে আজিমপুর বাস স্টপেজ এলাকার চৌরাস্তায়। পথচারী সেতু না থাকায় শিক্ষার্থী, কর্মজীবীসহ হাজারও মানুষকে প্রতিনিয়ত ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার হতে হচ্ছে। সড়কের আশপাশে বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও হাসপাতাল থাকায় এই সড়কে সব সময় মানুষের চলাফেরা। আর বাস স্টপেজ হওয়ায় বিভিন্ন রুটে চলা হাজারও মানুষ তো রয়েছেই। এলাকাবাসী বলছে, বিভিন্ন সময় পথচারী সেতুর জন্য আবেদন করে এলেও গুরুত্ব দেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এলাকাবাসীর অভিযোগ, রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অপ্রয়োজনীয় পথচারী সেতু রয়েছে। যেগুলো অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। অথচ ব্যস্ত এই চৌরাস্তায় বিভিন্ন সময় দুর্ঘটনা ঘটলেও পথচারী সেতু দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না।

গত বৃহস্পতিবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ফুট ওভারব্রিজ না থাকায় রাস্তা পারাপারের ক্ষেত্রে রাস্তার মাঝ বরাবর দিয়েই চলাচল করছে পথচারী। এতে মাঝেমধ্যেই দুর্ঘটনার মুখে পড়ছে তারা। রেজওয়ানা মণি নামে এক পথচারী বলেন, ‘একমুখী রাস্তায় একাধিক পথচারী সেতু থাকলেও এখানে চারদিকে গাড়ি চলছে, কিন্তু পথচারী সেতু নেই। বাচ্চাকে স্কুলে আনা-নেওয়ায় বেশ সমস্যা হয়। কখন কী ঘটে যায় এই ভাবনায় সব সময় ভয়ে ভয়ে থাকতে হয়।’

দেখা যায়, কলেজের শিক্ষার্থীরা রাস্তা পার হওয়ার জন্য দীর্ঘ সময় দাঁড়িয়ে থেকেও অনেক সময় নিরাপদে রাস্তা পার হতে পারে না। ট্রাফিক পুলিশ দাঁড় করালেও লেগুনা আর ব্যাটারিচালিত রিকশা দ্রুত চলে আসে। ইডেন মহিলা কলেজের এক শিক্ষার্থী নুসরাত। থাকেন লালবাগ আমলিগোলা এলাকায়। প্রায় প্রতিদিনই কলেজে যেতে হয় এই মোড় পার হয়ে। এই শিক্ষার্থী বলেন, ‘খুব সাবধানতার সঙ্গে রাস্তা পার হতে গেলেও অনেক সময় রিকশার সামনে পড়ে যেতে হয়। আর বাস তো আছেই।’ দেখা যায়, এই সড়কে চলে এমন বাসের মধ্যে রয়েছে, গাজীপুরগামী ভিআইপি, বিকাশ, মিরপুরগামী সেফটি পরিবহন, ধামরাইগামী গুলিস্তান-ধামরাই, ঠিকানা পরিবহন, মৌমিতা পরিবহন ও দেওয়ান।

বিষয়টি নিয়ে কথা বললে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসিবুর রহমান মানিক বলেন, ‘আজিমপুর চৌরাস্তার মোড়ে একটি পথচারী সেতুর জন্য বিভিন্ন সময় বলে আসছি। এখনো করা সম্ভব হয়নি। আমি চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। আশা করছি হয়ে যাবে।’



মন্তব্য