kalerkantho


গাজীপুর শহরের প্রধান সড়কসহ বিভিন্ন রাস্তার করুণ দশা

শরীফ আহমেদ শামীম, গাজীপুর   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



গাজীপুর শহরের প্রধান সড়কসহ বিভিন্ন রাস্তার করুণ দশা

নগরীর প্রধান সড়কের বেহাল অবস্থা

ভেঙেচুরে খানাখন্দে বেহাল  হয়ে পড়েছে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সড়কগুলো। গুটিকয়েক সড়ক ছাড়া বেশির ভাগ সড়কের অবস্থা এতটাই খারাপ যে যানবাহন তো দূরে থাক, হেঁটেও চলা যায় না। এতে নগরবাসীর চলাচলে চরম দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, দীর্ঘদিন মেরামত না করা এবং মেরামত হলেও মানসম্মত কাজ না করে টাকা তুলে নেওয়ায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা গেছে, নগরীর প্রধান রাজবাড়ি সড়কটি ভেঙে অসংখ্য ছোট-বড় গর্ত ও খানাখন্দে ভরে আছে, বিশেষ করে শিবমন্দির থেকে মোশারফ টাওয়ার পর্যন্ত সড়কের অবস্থা খুবই শোচনীয়। অথচ জেলা প্রশাসন, আদালত, নগরভবন, সরকারি অন্যান্য অফিস, সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজ এবং অভিজাত উত্তর ও দক্ষিণ ছায়াবীথি এলাকায় যাতায়াতের একমাত্র সড়ক এটি। রাজবাড়ি সড়ক থেকে জয়দেবপুর রেলস্টেশন ও নগরভবন হয়ে ধীরাশ্রম-টঙ্গী সড়কের অবস্থা আরো করুণ। পুরো সড়ক গর্ত আর নালায় পরিণত হয়ে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। বৃষ্টি হলে গর্ত ভেসে যায়, ফলে রাস্তা ঠিকমতো দেখতে না পাওয়ায় বিভিন্ন ধরনের যানবাহন বিপাকে পড়ে। তাই যানবাহন চলাচলও অনেক সময় বন্ধ হয়ে পড়ে। এক বছর আগে সড়কটির উন্নয়নের জন্য প্রকল্প গ্রহণ করা হলেও ঠিকাদারের গাফিলতির কারণে কাজ এগোচ্ছে না।

গাজীপুর শহরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোর মধ্যে পুবাইল-জয়দেবপুর ও জয়দেবপুর-সালনা সড়ক। বড় বড় গর্ত ও খানাখন্দের কারণে এক সপ্তাহ ধরে সালনা সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। যেকোনো সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে পুবাইল সড়ক। শহরের সঙ্গে বাইরের জেলা-উপজেলায় যাতায়াতের সংযোগ সড়ক হওয়ায় সড়ক দুটি দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন যাতায়াত করে।

সালনা থেকে শিমুলতলী যাওয়ার সড়কটিও মহানগরীর অন্যতম ব্যস্ত সড়ক। সালনা শিল্পাঞ্চল, সিকিউরিটি প্রিন্টিং প্রেস, সমরাস্ত্র কারখানা ডিজেল প্লান্ট, মেশিন টুলস কারখানা, ডুয়েটসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করতে হয়। অথচ পাঁচ কিলোমিটার সড়কের চার কিলোমিটারই ভাঙাচোরা। দীর্ঘদিন ভেঙে আছে জাঝর যোগীতলা-জয়দেবপুর সড়ক। একই অবস্থা রওশন সড়ক, বাসন সড়ক, ভুসির মিল সড়ক, জয় বাংলা সড়কসহ ৫৭টি ওয়ার্ডের বহু সড়কের।

জানা গেছে, অপর্যাপ্ত তহবিল, পরিকল্পনার অভাব, কর্মকর্তাদের ঘুষ বাণিজ্যসহ নানা অনিয়মের কারণে নগরীর সড়কগুলো করুণ দশায় নিপতিত হয়েছে। কয়েকটি সড়ক মেরামতের জন্য দরপত্র আহ্বান করা হলেও ঠিকাদার কাজ ফেলে রেখেছে। সিটি করপোরেশনের মনিটরিং না থাকায় দিন দিন আরো খারাপ হচ্ছে সড়কগুলো।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মুজিবুর রহমান কাজল বলেন, ‘নগরীর সড়ক মেরামত ও ড্রেন নির্মাণের জন্য যে পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন, তা নেই। তাই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দরপত্র আহ্বান করে ঠিকাদারদের কয়েকটি সড়কের কাজ দেওয়া হয়েছে। বর্ষার জন্য তারা কাজ করতে পারছে না। বৃষ্টি কমলে সড়ক দ্রুত মেরামত করা হবে।’

এ বিষয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কে এম রাহাতুল ইসলাম বলেন, ‘নতুন করে বেশ কয়েকটি সড়ক মেরামতের জন্য বরাদ্দ পাওয়া গেছে। শিগগিরই দরপত্র আহ্বান করা হবে।’

 

পুবাইল সড়ক


 

সালনা সড়ক

 

 

 



মন্তব্য