kalerkantho

ট্রাম্পের দেয়ালে পেন্টাগনের ১০০ কোটি ডলার অনুমোদন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মেক্সিকো সীমান্তে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রস্তাবিত দেয়াল নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ সংস্থানের অংশ হিসেবে ১০০ কোটি ডলার অনুমোদন করেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন। পেন্টাগণের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্যাট্রিক শানাহান সোমবার এ অনুমোদন দেন। তিনি জানিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্তে ১৮ ফুট প্রস্থের (সাড়ে পাঁচ মিটার) ও ৫৭ মাইল দীর্ঘ (৯২ কিলোমিটার) দেয়াল তুলতে এ তহবিল ব্যয় করা হবে। এ ছাড়া এ মেগাপ্রকল্পের আওতায় সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন রাস্তা নির্মাণ ও উন্নয়নের কাজ এবং এগুলোতে আলোরও ব্যবস্থা করা হবে।

পেন্টাগনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ভারপ্রাপ্ত পেন্টাগনপ্রধান প্যাট্রিক শানাহান আর্মি ইঞ্জিনিয়ার কোরের কমান্ডারকে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট এবং কাস্টমস ও বর্ডার প্যাট্রলের তরফে দেয়াল নির্মাণের পরিকল্পনা করা এবং তা বাস্তবায়নে ১০০ কোটি ডলার ব্যয়ের অনুমোদন দিয়েছেন।’

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কংগ্রেসকে পাশ কাটিয়ে দেয়াল নির্মাণের অর্থ পাওয়ার জন্য সীমান্ত পরিস্থিতিকে নিরাপত্তায় হুমকি উল্লেখ করে ‘জাতীয় জরুরি অবস্থা’ ঘোষণার পর এই প্রথম অর্থ বরাদ্দ পেলেন। ডেমোক্র্যাটরা এর প্রতিবাদ জানিয়েছেন। ডেমোক্র্যাট সিনেটরদের অভিযোগ, পেন্টাগন তহবিল দেওয়ার বিষয়টি কংগ্রেসকে জানানোর আগে যথাযথ কমিটির অনুমতি নেয়নি।

তবে পেন্টাগন তাঁদের বিবৃতিতে একটি কেন্দ্রীয় আইনের কথা উল্লেখ করে বলেছে, আন্তর্জাতিক সীমান্তে মাদক চোরাচালানের মতো তৎপরতা ঠেকাতে রাস্তা কিংবা বেড়া নির্মাণের খতিয়ার প্রতিরক্ষা দপ্তরের আছে।

মেক্সিকো সীমান্তে অবৈধ অভিবাসন রুখতে ‘যেকোনো মূল্যে’ স্থায়ী বেড়া নির্মাণ ছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অন্যতম নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি। নির্মাণকাজ শুরু করতে চলতি বছর কংগ্রেসের কাছে ৫৭০ কোটি ডলারও চেয়েছিলেন তিনি।

ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে এ নিয়ে মতদ্বৈততায় গত বছরের শেষ থেকে টানা ৩৫ দিন কেন্দ্রীয় সরকারের এক-চতুর্থাংশ বিভাগ ও সংস্থায় ‘অচলাবস্থা’ দেখেছিল যুক্তরাষ্ট্র। আরেক দফা অচলাবস্থা এড়াতে কংগ্রেস সদস্যরা দেয়ালের জন্য ১৩০ কোটি ডলার বরাদ্দ দিতে সম্মত হলেও তা ট্রাম্পের মনমতো হয়নি। সূত্র : রয়টার্স।

মন্তব্য