kalerkantho


শাহবাজ শরিফ আরো ১৪ দিনের রিমান্ডে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০



হাউজিং প্রকল্পে এক হাজার ৪০০ কোটি রুপি কেলেঙ্কারির ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার পাকিস্তানের একটি আদালত বিরোধীদলীয় নেতা শাহবাজ শরিফের আরো ১৪ দিনের রিমান্ড অনুমোদন করেছেন। পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের ভাই শাহবাজকে গত ৫ অক্টোবর ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো (এনএবি) গ্রেপ্তার করেছিল। সে সময় আদালত তাঁকে ১০ দিনের রিমান্ড দিয়েছিলেন।

শাহবাজ শরিফকে গতকাল নিশ্চিদ্র নিরাপত্তার মধ্যে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় বিপুলসংখ্যক সমর্থক আদালতে প্রাঙ্গণে উপস্থিত ছিল। শাহবাজ আদালতের বিচারক নাজমুল হাসানকে বলেন, তিনি হাউজিং প্রকল্পে কোনো অনিয়ম করেননি। এনএবি ১০ দিনের রিমান্ডে তাঁর বিরুদ্ধে অনিয়মের কোনো প্রমাণ খুঁজে পায়নি। এ সময় তিনি আদালতকে জিজ্ঞাসা করেন, যখন তিনি আদালতকে পূর্ণ সহযোগিতা করছেন তখন এনএবি কেন তাঁকে আবার রিমান্ডে নিল? এনএবির কোনো কর্মকর্তা গত তিন দিন আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেননি।

শাহবাজ আরো বলেন, ‘আমি দেশের সেবা করেছি এবং আমি মন্ত্রী থাকা অবস্থায় দেশের বিভিন্ন প্রকল্পে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার অপচয় বন্ধ করেছি।’

শাহবাজের আইনজীবী রিমান্ড বাড়ানোর বিরোধিতা করেছিলেন। আদালতকে তিনি জানান, এই প্রকল্পে শাহবাজের জড়িত থাকার বিষয় প্রমাণে এনএবি ব্যর্থ হয়েছে। তার পরও তারা রিমান্ড বাড়ানোর আবেদন জানিয়েছে। তিনি রিমান্ড বাতিল করার আবেদন জানিয়ে বলেন, এটি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা। তা ছাড়া মন্ত্রী থাকা অবস্থায় তিনি কোনো অনৈতিক আদেশ দেননি।

আদালতে শাহবাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলা হয়, আশিয়ানা হাউজিং প্রকল্পে সফল দরপত্রদাতাকে কার্যাদেশ না দিয়ে অন্য এক দরপত্রদাতাকে দেওয়া হয়। এতে করে রাষ্ট্রের ১৯৩ মিলিয়ন রুপি ক্ষতি হয়।

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 



মন্তব্য