kalerkantho


ইউনিসেফ বলছে

‘ভয়াবহ বিপদে’ ত্রিপোলির পাঁচ লাখ শিশু

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



সহিংসতার কারণে লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলির পাঁচ লাখ শিশু ‘ভয়াবহ বিপদের’ মধ্যে রয়েছে।

সোমবার জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ এ তথ্য জানিয়েছে। এদিকে আগস্টের শেষ দিকে ত্রিপোলিতে প্রতিদ্বন্দ্বী সশস্ত্র গ্রুপগুলোর মধ্যে নতুন করে সহিংসতা শুরুর পর থেকে গত শনিবার পর্যন্ত ১১৫ জন নিহত ও প্রায় ৪০০ মানুষ আহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

ইউনিসেফ জানায়, সোমবার যুদ্ধবিরতির আগ পর্যন্ত ত্রিপোলির দক্ষিণাঞ্চলীয় এলাকাগুলোতে তীব্র আকারে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে প্রতিদ্বন্দ্বী বাহিনীগুলো। এতে ৪৮ ঘণ্টায় বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়ে এক হাজার দু শর বেশি পরিবার। এ ছাড়া গত এক মাসে শহরটি ছেড়ে বিভিন্ন এলাকায় চলে যেতে বাধ্য হয়েছে ২৫ হাজারের বেশি মানুষ। এদের মধ্যে অর্ধেকই শিশু।

ইউনিসেফের মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকাবিষয়ক পরিচালক জার্ট ক্যাপেলাইরে বলেন, এবারের সংঘর্ষে সবচেয়ে বেশি জীবন দিতে হয়েছে শিশুদের। এ ছাড়া সশস্ত্র বাহিনীগুলোও ব্যাপকসংখ্যক শিশুকে যোদ্ধা হিসেবে নিয়োগ দিচ্ছে। ফলে সেখানে যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে তাতে ‘আমরা দেখতে পাচ্ছি শিশুদের স্কুলে যেতে বাধা দেওয়ার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় টিকা নেওয়া থেকেও বিরত রাখা হচ্ছে।’

এদিকে সমুদ্রপথে ইউরোপে যাওয়ার উদ্দেশ্যে যেসব শিশুর মা-বাবা লিবিয়ায় এসে আশ্রয় নিয়েছেন তারা সবচেয়ে বেশি বিপদের মধ্যে রয়েছে বলেও জানান তিনি। ক্যাপেলাইরে বলেন, ‘এদের অধিকাংশই মানবেতর জীবন যাপন করছে এবং অনেককেই বিভিন্ন কারাগারে আটক রাখা হয়েছে।’  

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে লিবিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট কর্নেল মুয়াম্মার গাদ্দাফি বিদ্রোহীদের হাতে নিহত হওয়ার পর থেকেই দেশজুড়ে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। এ ছাড়া জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় হওয়া যুদ্ধবিরতি চলতি বছরের ৪ সেপ্টেম্বর ভেস্তে গেলে রাজধানী ত্রিপোলিতে হামলা শুরু করে তারহুনা ও শরাতাভিত্তিক দুটি গ্রুপ।

সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য