kalerkantho


ভারতে বর্তমান ও সাবেক দুই বিধায়ককে গুলি করে মারল মাওবাদীরা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের তেলেগু দেশম পার্টির (টিডিপি) এক বর্তমান এবং এক সাবেক বিধায়ককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশ জানিয়েছে, মাওবাদী গেরিলাদের হাতেই খুন হয়েছেন এই দুই নেতা। ঘটনাটি ঘটেছে বিশাখাপত্তনম থেকে ১২৫ কিলোমিটার দূরে থুটাঙ্গি গ্রামে। নিহতরা হলেন আরাকুর তেলেগু দেশম পার্টির বিধায়ক কিদারি সর্বেশ্বর রাও এবং সাবেক বিধায়ক সিবেরি সোমা।

পুলিশ জানায়, দুই নেতার ওপর পরিকল্পনা করেই হামলা করা হয়েছে। সিপিআই-মাওবাদী (সিপিআই-এম) দলের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মাওবাদীরা প্রতিষ্ঠা সপ্তাহ উদ্‌যাপন করছে। দীর্ঘদিন ধরেই মাওবাদীদের হিটলিস্টে ছিলেন আরাকুর বিধায়ক সর্বেশ্বর রাও। বিভিন্ন সময় এই কথা বিবৃতি দিয়েও জানায় তারা। তাঁকে খুন করার জন্য প্রতিষ্ঠা দিবসের সময়টাই বেছে নিল মাওবাদীরা।

আরাকুর সাবেক বিধায়ক সিবেরি সোমার সঙ্গে নিজের বিধানসভা ক্ষেত্রের দুম্বিগ্রুদায় একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার পথেই হামলা চালায় মাওবাদীরা। হামলাকারীদের মধ্যে ছিল ৬০ জন মাওবাদী গেরিলা, যার বেশির ভাগই নারী। সর্বেশ্বর রাও এবং সিবেরি সোমাকে ঘিরে ধরে তারা এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে। বিধায়কের নিরাপত্তারক্ষীরা পাল্টা গুলি চালালেও মাওবাদীরা সংখ্যায় বেশি থাকায় বিধায়ক এবং সাবেক বিধায়ককে রক্ষা করা যায়নি। ঘটনার পরই মাওবাদী দমনে বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত গ্রেহাউন্ড বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে। অতিরিক্ত সতর্কতা হিসেবে অন্ধ্র প্রদেশের সব বিধায়ককে গ্রামাঞ্চলে যাওয়ার আগে পুলিশকে জানিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই নিহত বিধায়ক কিদারি সর্বেশ্বর রাওয়ের গতিবিধির ওপর নজর রাখছিল মাওবাদীরা। এলাকার বক্সাইট খনি থেকে অবৈধভাবে আকরিক তোলা নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ ছিল দীর্ঘদিন ধরেই। সূত্র : পিটিআই।



মন্তব্য