kalerkantho


বন্ধ হয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্রে ফিলিস্তিন দূতাবাস

জোর করে আলোচনার টেবিলে আনতেই ট্রাম্প প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্ত

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



বন্ধ হয়ে গেল যুক্তরাষ্ট্রে ফিলিস্তিন দূতাবাস

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত ফিলিস্তিন দূতাবাসের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। ট্রাম্প প্রশাসনের নির্দেশের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার থেকে দূতাবাসের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। গত সোমবার ফিলিস্তিন দূতাবাসের কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বলা হচ্ছে, চাপ প্রয়োগ করে ফিলিস্তিনকে আলোচনার টেবিলে আনতেই ট্রাম্প এ কৌশল  নিয়েছেন।

গত ডিসেম্বরে বিতর্কিত জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন ট্রাম্প। মূলত এর পর থেকেই মার্কিন প্রশাসনের সঙ্গে ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষের কূটনৈতিক যোগাযোগ বন্ধ আছে।

বৃহস্পতিবার এক টুইটার বার্তায় দূতাবাসের প্রধান হুসান জোমলোত বলেন, ‘দূতাবাস বন্ধ করার জন্য আজ পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দেওয়া ছিল।’

এমন দিনে দূতাবাসের কার্যক্রম বন্ধ হলো, যেদিন ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে ঐতিহাসিক ‘ওসলো চুক্তি’ হয়েছিল। তবে ২৫ বছর আগের ওই চুক্তি এখন অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছে।

জোমলোত বলেন, দূতাবাস বন্ধ করে দেওয়ার মার্কিন সিদ্ধান্ত ‘দুঃখজনক’ এবং ‘প্রতিহিংসাপরায়ণ’। তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প প্রশাসনের এ সিদ্ধান্ত আমাদের অবাক করেনি। তারা আমাদের জন্য মাত্র দুটি উপায় রেখেছে। হয় ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে, নয়তো জাতি হিসেবে আমাদের অধিকার হারাতে হবে। কিন্তু আমাদের প্রেসিডেন্ট, নেতৃত্ব এবং ফিলিস্তিনের মানুষ নিজেদের অধিকারকেই বেছে নিয়েছে।’

মার্কিন জণগণের উদ্দেশে জোমলোত বলেন, ‘দুই দেশের সম্পর্ক নিয়ে ফিলিস্তিনিরা খুবই বিষণ্ন। তবে শিগগিরই দুই দেশের সুসম্পর্ক ফিরে আসবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।’

তবে ফিলিস্তিনের ওপর চাপ তৈরি করতে দূতাবাস বন্ধের নির্দেশই যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম পদক্ষেপ নয়। এর আগে ফিলিস্তিনিদের জন্য ২০ কোটি ডলারের সহায়তা বন্ধ করে দেয় ট্রাম্প প্রশাসন। এ ছাড়া সপ্তাহ দুয়েক আগে ফিলিস্তিনি শরণার্থীবিষয়ক সংস্থায় অর্থায়ন বন্ধের ঘোষণাও দেয় তারা।

ফিলিস্তিনের অভিযোগ, ট্রাম্প প্রশাসন একতরফা ইসরায়েলের পক্ষ নিয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে ফিলিস্তিনকে আলোচনার টেবিলে আসতে চাপ দিচ্ছে। যদিও ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর বলেছেন, ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে একটি স্থায়ী শান্তিচুক্তির জন্য তিনি কাজ করবেন।

বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রাচ্য শান্তি আলোচনার মার্কিন মধ্যস্থতাকারী জেসন গ্রিনব্লাট এক টুইটার বার্তায় ফিলিস্তিনের উদ্দেশে বলেন, ‘আমাদের শান্তি পরিকল্পনা প্রকাশ না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। যখন এটা প্রকাশ হবে, দয়া করে পুরোটা পড়বেন এবং এর সম্পর্কে মূল্যায়ন করবেন। কোনো গুজবে কান দেবেন না।’

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হেদার নাওয়ার্ট বলেন, ‘শান্তি পরিকল্পনা প্রকাশের জন্য মার্কিন প্রশাসন এখনো পুরোপুরি প্রস্তুত নয়।’ তিনি বলেন, ‘এত দিন কোনো পরিকল্পনাই ফলপ্রসূ হয়নি। তাই আমরা ব্যতিক্রমী কিছু করার চেষ্টা করছি।’ সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য