kalerkantho


‘পাকিস্তান আর কখনো অন্য দেশের হয়ে যুদ্ধ করবে না’

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



‘পাকিস্তান আর কখনো অন্য দেশের হয়ে যুদ্ধ করবে না’

পাকিস্তান আর কখনো অন্য দেশের হয়ে যুদ্ধ করবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। গত বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, শুরু থেকেই তিনি যুদ্ধের বিরুদ্ধে ছিলেন এবং তাঁর সরকারের পররাষ্ট্রনীতিতে দেশের স্বার্থকেই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে।

রাওয়ালপিন্ডির সামরিক কার্যালয়ে প্রতিরক্ষা এবং শহীদ দিবস স্মরণে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ইমরান। সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ের বিপর্যয় ও দুর্ভোগের কথা উল্লেখ করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শুরু থেকেই আমি এই যুদ্ধের বিরুদ্ধে। আমরা ভবিষ্যতে অন্য কোনো দেশের যুদ্ধের অংশীদার হব না। আমাদের পররাষ্ট্রনীতিতে এই দেশের স্বার্থকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হবে।’ তিনি অবশ্য সন্ত্রাসবিরোধী লড়াইয়ে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, অন্য কোনো দেশের সেনাবাহিনী এই লড়াই পাকিস্তানের সেনাদের মতো করে লড়েনি। ইমরান বলেন, সব হুমকির বিরুদ্ধে দেশকে নিরাপদ রাখতে নিরাপত্তা বাহিনী এবং গোয়েন্দা সংস্থাগুলো অসাধারণ ভূমিকা পালন করেছে। এ ছাড়া তিনি শিশুদের স্কুলে পাঠিয়ে এবং হাসপাতাল তৈরির মাধ্যমে মানবসম্পদে বিনিয়োগের আহ্বান জানান। প্রথম মুসলিম রাজ্য মদিনায় সবার জন্য সমান সুযোগের ব্যবস্থা করা হয়েছিল উল্লেখ করে ইমরান বলেন, ‘মদিনার নীতি অনুসরণ করে সরকার সব ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনবে।’ তিনি বলেন, পাকিস্তানের বিপুল পরিমাণ প্রকৃতিক সম্পদ রয়েছে। ‘আমরা খনিজসম্পদে সমৃদ্ধ। বৈচিত্র্যময় ভূসংস্থান এবং চারটি মৌসুম রয়েছে আমাদের। এখন প্রয়োজন শুধু দেশকে মহান বানানোর লক্ষ্য নিয়ে সত্ভাবে কাজ করে যাওয়া।’

সামরিক ও বেসামরিক প্রশাসনের মধ্যে পার্থক্যের বিষয়টি নাকচ করে দিয়ে ইমরান বলেন, দেশ যেসব সংকটের মোকাবেলা করছে তার প্রেক্ষাপটে সবই সমান। তিনি বলেন, সেনাবাহিনী হচ্ছে একমাত্র প্রতিষ্ঠান, যেখানে রাজনীতির ভিত্তি কিছু নির্ধারিত হয় না। যা হয় সবই মেধার ভিত্তিতে। সূত্র : পিটিআই।



মন্তব্য