kalerkantho


ইদলিবের ব্যাপারে সিরিয়াকে সতর্ক করলেন ট্রাম্প

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



সিরিয়ার ইদলিবে অভিযান না চালাতে সিরিয়া, রাশিয়া ও ইরানকে সতর্ক করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, সেখানে অভিযান চালালে তা মারাত্মক ‘মানবিক বিপর্যয়’ ডেকে আনতে পারে। একই ধরনের সতর্কতা এসেছে জাতিসংঘসহ একাধিক পশ্চিমা গবেষণাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও।

ইদলিব সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় একটি প্রদেশ। এটি এখন সরকারবিরোধী যোদ্ধাদের সর্বশেষ ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। সেখানে অভিযান চালানোর লক্ষ্যে এরই মধ্যে প্রদেশটির চারপাশে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সেনারা জড়ো হতে শুরু করেছে। ধারণা করা হচ্ছে, যেকোনো সময় রাশিয়া ও ইরানের সহযোগিতা নিয়ে সেখানে অভিযান শুরু হবে।

এ অবস্থায় সোমবার ট্রাম্প এক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘সেখানে বেপরোয়া অভিযান চালানো বাশার আল আসাদের উচিত হবে না। আর সেখানকার সম্ভাব্য মানবিক বিপর্যয়ে অংশ নিলে রাশিয়া ও ইরানও বড় রকমের ভুল করবে।’ ট্রাম্প আরো বলেন, সেখানে অভিযান চালালে ‘লাখ লাখ মানুষ নিহত হবে; এটা হতে দেবেন না।’

জাতিসংঘসহ বেশ কয়েকটি দাতা সংস্থা সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, সেখানে অভিযান চালালে এমন মানবিক বিপর্যয় তৈরি হতে পারে; যা সিরিয়ার সাত বছরের গৃহযুদ্ধে এখনো ঘটেনি। যদিও রাশিয়া ও ইরান জোর দিয়ে বলেছে, ইদলিব থেকে বিদ্রোহীদের অবশ্যই বিতাড়িত করা হবে। সে ক্ষেত্রে দেশ দুটি সেখানকার অভিযানে সরকারি সেনাদের সব ধরনের সহযোগিতা দেবে, এটা প্রায় নিশ্চিত। এ ছাড়া সম্প্রতি দামেস্ক গিয়ে আসাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাবেদ জারিফ। ধারণা করা হচ্ছে, ইদলিবের সম্ভাব্য অভিযান নিয়ে কথা বলতেই জাবেদ জারিফ সিরিয়া গিয়েছিলেন।

ব্রাসেলসভিত্তিক গবেষণাপ্রতিষ্ঠান ‘ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপ’ (আইসিজি) ৯ পৃষ্ঠার এক বিবৃতিতে বলেছে, এখনো ইদলিবে বড়সড় অভিযান কিংবা সম্ভাব্য মানবিক বিপর্যয় এড়ানো সম্ভব। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘সম্ভাব্য অভিযানে রাশিয়ার বিমান হামলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু রাশিয়ার বোঝা উচিত, ইদলিবে রক্ত ঝরলে তা তাদের রাজনৈতিক লক্ষ্যমাত্রাকেই ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। সেখানে অভিযান হলে তা সব রকমের রাজনৈতিক সমাঝোতার সম্ভাবনাকেই ধূলিসাৎ করে দেবে।’ সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য