kalerkantho


পাকিস্তানের সাবেক গোয়েন্দা প্রধানকে সেনাবাহিনীর তলব

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ মে, ২০১৮ ০০:০০



পাকিস্তানের সাবেক গোয়েন্দা প্রধানকে সেনাবাহিনীর তলব

আসাদ দুররানি

সামরিক বাহিনীর আইন লঙ্ঘন করে বইয়ে তথ্য প্রকাশের অপরাধে পাকিস্তানের ইন্টার সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের (আইএসআই) সাবেক প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল আসাদ দুররানিকে ডেকে পাঠিয়েছে সেনাবাহিনী। গতকাল সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানায়। দুররানির ওই বইয়ে ভারতশাসিত কাশ্মীরে সংঘর্ষে ইসলামাবাদের মদদ রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে দেশটির স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সাবেক গোয়েন্দাপ্রধানের সঙ্গে মিলে লেখা ওই বই প্রকাশিত হওয়ায় দুররানির তীব্র সমালোচনা করেছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাওয়াজ শরিফ।

১৯৯০ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর গোয়েন্দা শাখা আইএসআইয়ের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন দুররানি। পরে সেখান থেকে অবসরে নিয়ে তিনি ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস উইং ইন্টেলিজেন্স এজেন্সির (র) সাবেক প্রধান এ এস দুলাতের সঙ্গে মিলে ‘দ্য স্পাই ক্রোনিকলস : র, আইএসআই অ্যান্ড ইলিউশন অব পিস’ নামের বইটি প্রকাশ করেন। এতে ভারতীয় সাংবাদিক আদিত্য সিনহার সঙ্গে হওয়া তাঁদের বিভিন্ন সময়ে কাশ্মীর, আফগানিস্তানসহ দুই দেশের পারস্পরিক সমস্যাগুলো নিয়ে হওয়া আলোচনা উঠে এসেছে।

সেনাবাহিনীর মুখপাত্র আসিফ গফুর বলেন, দুররানিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আগামী ২৮ মে সেনাবাহিনীর জেনারেল হেডকোয়ার্টারে ডেকে পাঠানো হয়েছে। ‘আমরা মূলত তাঁর প্রকাশিত বই স্পাই ক্রোনিকলস সম্পর্কে তাঁর মতামত জানতে চাইব।’

তবে বিষয়টি নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন নওয়াজ শরিফ। কিছুদিন আগেই মুম্বাই হামলা নিয়ে শরিফের একটি মন্তব্য নিয়ে উত্তাল হয়ে ওঠে পাকিস্তান। ওই সময় শরিফ মুম্বাই হামলা পাকিস্তান থেকে যাওয়া জঙ্গিরা চালিয়েছে বলে ইঙ্গিত করেন। শরিফ এখন এ ঘটনাটির সঙ্গে দুররানির বিষয়টি মেলাতে চাইছেন। তিনি বলেন, যে মন্তব্য তাঁর জন্য চরম সীমা হিসেবে বিবেচিত হয়েছে এর চেয়েও ভয়ংকর তথ্য বইয়ে দুররানি প্রকাশ করেছেন। তবে দুররানির বিষয়ে প্রতিক্রিয়া শরিফের মতো হয়নি। শরিফের মন্তব্যের পর জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক ডেকে নিন্দা জানানো হয়। শরিফ এবারও জাতীয় নিরপত্তা পরিষদের বৈঠক ডাকার আহ্বান জানিয়েছেন। সূত্র : এএফপি।

 



মন্তব্য