kalerkantho


হামলার তীব্রতায় ঘৌতায় ত্রাণ তৎপরতা স্থগিত

যুদ্ধবিরতি চুক্তি বাস্তবায়নের দাবি জাতিসংঘের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



সিরিয়ার পূর্ব ঘৌতায় বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সরকারি সেনাদের জোরালো হামলার মুখে ত্রাণ তৎপরতা স্থগিত করা হয়েছে। এ ছাড়া সেখানে সরকারি সেনাদের হামলায় গত বুধবার অন্তত ৫০ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে একাধিক বেসরকারি সংস্থা। এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পূর্ব ঘৌতায় অবিলম্বে ৩০ দিনের যুদ্ধবিরতি চুক্তি বাস্তবায়নের দাবি জানিয়েছে জাতিসংঘ।

চার লাখ বাসিন্দার পূর্ব গৌতা এলাকাটি রাজধানী দামেস্কোর প্রাণকেন্দ্র থেকে ১৫ কিলোমিটার পূর্ব দিকে অবস্থিত। ২০১৩ সালের মাঝামাঝি সময় থেকে শহরটি সরকারবিরোধী বিদ্রোহীদের দখলে রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে সপ্তাহ দুয়েক আগে নতুন করে অভিযান শুরু করে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের অনুগত সেনারা।

যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ায় উদ্ধার তৎপরতা চালায় বেসরকারি সংস্থা ‘হোয়াইট হেলমেটস’ বা ‘সিরিয়ান সিভিল ডিফেন্স’। তাদের হিসাব অনুযায়ী, আসাদ বাহিনীর হামলায় গত বুধবার ঘৌতায় অন্তত ৫০ বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন ‘সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস’-এর (এসওএইচআর) দাবি, সেখানে গত দুই সপ্তাহের হামলায় নিহত বেসামরিক লোকের সংখ্যা ৮০০ ছাড়িয়েছে।

হোয়াইট হেলমেটসের মুখপাত্র মাহমুদ আদম বলেন, ‘আসাদ বাহিনী সাধারণ মানুষজনের ওপর গোলাবর্ষণ থেকে শুরু করে ফসফরাস বোমা—সম্ভাব্য সব অস্ত্রই ব্যবহার করছে।’

এদিকে সিরিয়ান রেড ক্রস জানিয়েছে, আসাদ বাহিনী হামলার তীব্রতা বাড়িয়ে দেওয়ায় ঘৌতায় ত্রাণ তৎপরতা স্থগিত করা হয়েছে। সংগঠনটি জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার একটি ত্রাণবহর ঘৌতায় পৌঁছানোর কথা ছিল। ত্রাণসামগ্রীর বেশির ভাগই ওষুধ অস্ত্রোপচারের জিনিসপত্র।

রেড ক্রস আরো জানায়, ত্রাণবহরে মোট ৪৬টি ট্রাক ছিল। এগুলো গত সোমবার সেখানে পৌঁছায়। এর মধ্যে ১৪টি ট্রাক থেকে মালপত্র নামাতে দেয়নি সরকারি সেনারা।

আসাদের অনুগত বাহিনীর এক সামরিক কমান্ডার গতকাল বার্তা সংস্থা রয়টার্সের কাছে দাবি করেন, তাঁরা পূর্ব ঘৌতা এলাকাটি দুটি ভাগে ভাগ করতে সক্ষম হয়েছেন। এখন পূর্ব ভাগ দখলের পর তাঁরা পশ্চিম দিকে অগ্রসর হচ্ছেন।

বিদ্রোহী গ্রুপ ‘ফায়লাক আল-রাহমান’-এর মুখপাত্র ওয়ায়েল অলওয়ান অবশ্য আলজাজিরার কাছে দাবি করেছেন, আসাদ বাহিনী এ পর্যন্ত মাত্র ৩০ শতাংশ এলাকা দখল করতে পেরেছে। সূত্র : বিবিসি, এএফপি।


মন্তব্য