kalerkantho


দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াবেন উন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়াবেন উন

দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়তে চান উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। উন বলেছেন, এ ব্যাপারে তিনি ‘প্রবলভাবে আগ্রহী’। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম এ কথা জানিয়েছে। পিয়ংইয়ং সফরে যাওয়া দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় দুই কোরিয়ার মধ্যে শীর্ষ সম্মেলন আয়োজনের বিষয়েও তিনি আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছে, কিম জং উন উত্তর কোরিয়ায় সফরে আসা দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিদের উষ্ণ সংবর্ধনা জানান। প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় তিনি খুব প্রাণবন্ত ও হাসিখুশি ছিলেন। এ সময় দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের লেখা একটা চিঠি তাঁকে হস্তান্তর করে প্রতিনিধিদল। 

কেসিএনএ আরো জানায়, সম্ভাব্য শীর্ষ সম্মেলনের বিষয়ে মুন জায়ে ইনের আগ্রহের কথা জেনে উন তাতে সম্মতি দেন। প্রতিনিধিদের সঙ্গে নৈশভোজে উন প্রায় চার ঘণ্টা কাটান। সাধারণত কোনো আনুষ্ঠানিক নৈশভোজে উপস্থিত না থাকলেও কিমের স্ত্রী রি সল-জু এবার উপস্থিত ছিলেন। ছিলেন কিমের বোন কিম ইয়ো জংও।

এদিকে শীর্ষ সম্মেলনের বিষয়ে দক্ষিণ কোরিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মুন ও উনের আলোচনার ব্যাপারে এখনো পর্যন্ত কোনো দিন তারিখ চূড়ান্ত হয়নি। দুই শীর্ষ নেতার আলোচনার বিষয়ে শুধু কথা হয়েছে। গতকাল সেনা কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় মুন বলেছেন, ‘কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত করতে আমরা অবশ্যই উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনা করব। কিন্তু একই সময়ে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্র ও ক্ষেপণাস্ত্রের হুমকি মোকাবেলায় আমাদের সামর্থ্যকে দ্রুত এবং ফলপ্রসূভাবে উন্নত করতে হবে।’

২০১১ সালে দেশের শাসনভার হাতে নেওয়ার পর উন খুব কমসংখ্যক বিদেশি প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। সর্বশেষ ২০০৭ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধিরা উত্তর কোরিয়া সফর করেছিলেন।

দুই কোরিয়ার মধ্যে তিক্ত সম্পর্ক থাকলেও দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিত শীতকালীন অলিম্পিক গেমস তাদের আবার কাছাকাছি নিয়ে আসে। গেমসের সময় উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধিরা সিউলে যান। আবার সিউলের শীর্ষস্থানীয় প্রতিনিধিরা দুই দিনব্যাপী পিয়ংইয়ং সফর করলেন। দুই দিনের সফর শেষে গতকাল তাঁরা দেশে ফিরেছেন। ভবিষ্যতে দ্বিপক্ষীয় আলোচনার ব্যাপারে দুই দল ‘একটি সন্তোষজনক অবস্থানে’ পৌঁছেছে বলে দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। সফরকারী দক্ষিণ কোরিয়ার দল এই সপ্তার শেষে ওয়াশিংটনে যাবে। তারা উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আলোচনার বিষয়বস্তু যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের অবহিত করবে।

এদিকে দুই কোরিয়ার সম্পর্কোন্নয়নের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, উত্তর কোরিয়া পারমাণবিক অস্ত্র পরিত্যাগ না করলে তাদের সঙ্গে আলোচনা হবে না। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য