kalerkantho


যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার জবাব

অস্ত্র প্রতিযোগিতার কোনো ইচ্ছা নেই

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



অস্ত্র প্রতিযোগিতার কোনো ইচ্ছা নেই

রাশিয়ার ‘অজেয়’ ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে ওয়াশিংটন ও মস্কোর মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্ররা মনে করে, মস্কো এর মধ্য দিয়ে অস্ত্র প্রতিযোগিতাকে উসকে দিচ্ছে। জবাবে মস্কো জানিয়েছে, সমরাস্ত্রের দৌড়ে শামিল হওয়ার কোনো ইচ্ছা তাদের নেই।

গত বৃহস্পতিবার ‘স্টেট অব দ্য ন্যাশন’ ভাষণে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান, তাঁরা একটি ‘অজেয়’ ক্ষেপণাস্ত্র বানিয়েছেন। তিনি বলেন, এটি পশ্চিমাদের যেকোনো ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে ফাঁকি দিতে সক্ষম। এমনকি ভিডিও অ্যানিমেশনে নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের ক্ষমতাও দেখানো হয়। তাতে দেখা গেছে, ক্ষেপণাস্ত্রটি আটলান্টিকসহ বিভিন্ন পাহাড় ও সমুদ্র পাড়ি দিচ্ছে। অনেকের মতে, ভিডিওতে প্রতীকী ক্ষেপণাস্ত্রটির অভিমুখ ছিল যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার দিকে।

আগামী ১৮ মার্চ প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে ‘স্টেট অব দ্য ন্যাশন’ ভাষণ দেন পুতিন। প্রায় দুই ঘণ্টার ওই ভাষণের অর্ধেক সময় ধরেই রাশিয়ার নতুন অস্ত্র নিয়ে কথা বলেন তিনি।

ন্যাটো বাহিনীর পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্ররা বলছে, পুতিনের ওই ভাষণ সামরিক অস্ত্রের প্রতিযোগিতাকে উসকে দেবে। বিষয়টি নিয়ে গত শুক্রবার টেলিফোনে কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল।

মার্কেল দপ্তরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘পুতিনের সাম্প্রতিক ভাষণ নিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং চ্যান্সেলর মার্কেল উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তাঁর ওই বক্তব্য সামরিক অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

এর আগে ন্যাটো মুখপাত্র ওয়ানা লুনগেসকু বলেন, ‘আমাদের মিত্রদের উদ্দেশে রাশিয়া যে বক্তব্য দিয়েছে, তা অগ্রহণযোগ্য এবং ধ্বংসাত্মক।’

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র দাবি করেন, রাশিয়া স্নায়ুযুদ্ধের সময়কার অস্ত্র চুক্তি লঙ্ঘন করেছে। এ ছাড়া ভিডিওতে প্রতীকী ক্ষেপণাস্ত্রের অভিমুখ ফ্লোরিডামুখী হওয়ার বিষয়টিকে ‘দুঃখজনক’ বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

অবশ্য পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ দাবি করছেন, সামরিক নিরস্ত্রীকরণের কোনো চুক্তি রাশিয়া লঙ্ঘন করেনি। গত শুক্রবার তিনি বলেন, ‘অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ কিংবা নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ক আইনের কোনো ধারা রাশিয়া লঙ্ঘন করেছে—এমন অভিযোগ আমরা স্পষ্টভাবে প্রত্যাখ্যান করছি। এ ছাড়া সমরাস্ত্রের দৌড়ে শামিল হওয়ার কোনো ইচ্ছা আমাদের নেই।’ সূত্র : এএফপি।

 


মন্তব্য