kalerkantho


কাবুলে হোটেলে হামলায় বিদেশিসহ নিহত ১৮

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



কাবুলে হোটেলে হামলায় বিদেশিসহ নিহত ১৮

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে গত শনিবার বন্দুকধারীদের হামলায় ১৪বিদেশিসহ কমপক্ষে ১৮ জন নিহত হয়েছেন। পাহাড়ের ওপর অবস্থিত ছয়তলা হোটেল ভবনে বিশেষ বাহিনী প্রায় ১২ ঘণ্টা লড়াইয়ের পর হামলাকারীদের হত্যা করে অন্যদের উদ্ধার করে। হামলার ঘটনায় হোটেলের এক অংশে আগুন ধরে যায়।

আফগানিস্তানের তালেবান জঙ্গিগোষ্ঠী হামলার দায় স্বীকার করেছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসরাত রাহিমি গতকাল রবিবার বলেছেন, ‘হামলায় বিভিন্ন দেশের অন্তত ১৪ জন এবং চারজন আফগান নাগরিক নিহত হয়েছেন। নিহত বিদেশিদের মধ্যে নারীও রয়েছে বলে জানান তিনি। তবে  গতকাল রাতে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহতরা কোন দেশের নাগরিক তা জানায়নি আফগান কর্তৃপক্ষ। এছাড়া কত জন জঙ্গি ছিল তাও জানা যায়নি। তবে আফগান কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, জঙ্গিদের সবাইকেই হত্যা করা হয়েছে। প্রাথমিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, চার জন জঙ্গি এই হামলায় অংশ নেয়।

হোটেলের ষষ্ঠ তলায় শেষ হামলাকারীকে হত্যার পর সেখান থেকে নিহত বিদেশি নাগরিকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ৪০ জনের বেশি বিদেশিসহ প্রায় ১৫০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।’ রাহিমি আরো বলেছেন, ‘হামলাকারীদের সঙ্গে হালকা ধরনের অস্ত্র ও রকেটচালিত গ্রেনেড ছিল।’

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, হেলিকপ্টার ব্যবহার করে বিশেষ বাহিনীর সদস্যরা হোটেলের ছাদে নামেন এবং কয়েক ঘণ্টা লড়াই শেষে চার হামলাকারীকে হত্যা করেন। অন্তত ১৬ ঘণ্টা ধরে অভিযান চালায় আফগান সেনাবাহিনীর সদস্যরা। পুরো সময়টাই গুলি বর্ষণের শব্দ পাওয়া গেছে।

রাতভর হামলার সময় হোটেলের ছাদ থেকে বিছানার চাদর ব্যবহার করে অনেকে নিরাপদ স্থানে সরে যান। আফগানিস্তানের টোলো নিউজ স্টেশন থেকে প্রচারিত টেলিভিশন ফুটেজে দেখা যায়, বিছানার চাদর দড়ির মতো বানিয়ে নিচে নামতে গিয়ে হাত ফসকে একজন পড়ে যান। টেলিভিশন ফুটেজে হোটেলের ছাদে আগুন জ্বলতেও দেখা গেছে। গতকাল সকালেও হোটেলের ছাদ থেকে আগুন জ্বলতে দেখা যায়।

আফগানিস্তানের একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হামলার ঘটনায় আটজন আহত হয়েছেন। তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ছয়জন আহত হওয়ার কথা জানিয়েছে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গত শনিবার রাতে চারজন বন্দুকধারী হোটেলে ঢুকে অতিথি ও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রতি এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে কয়েকজনকে জিম্মি করে। হামলার সময় হোটেলের ভেতর লুকিয়ে থাকা এবং তথ্য-প্রযুক্তিবিষয়ক এক সেমিনারে যোগ দিতে আসা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অতিথি এএফপিকে বলেন, ‘হামলাকারীরা হোটেলের অভ্যন্তরে কি না তা আমি ঠিক বুঝতে পারছি না, তবে আমি প্রথম তলার কাছাকাছি কোনো স্থানে গুলির শব্দ শুনতে পাচ্ছি। আমরা আমাদের রুমের মধ্যে লুকিয়ে আছি। হামলাকারীরা আমাদের কাছে আসার আগেই যত দ্রুত সম্ভব আমাদের উদ্ধারের জন্য নিরাপত্তাকর্মীদের অনুরোধ করেছি।’

ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে হামলার পাশাপাশি এদিন আফগানিস্তানের আরো কিছু ঘটনায় বেশ কয়েকজন নিহত হয়েছেন। বালখ প্রদেশে মাঝরাতে ঘরে ঘরে গিয়ে তালেবানরা পুলিশদের খুঁজে বের করে তাঁদের হত্যা করে। ডেপুটি পুলিশ প্রধান আব্দুল রাজিক কাদেরি বলেছেন, অন্তত ১৮ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে হত্যা করেছে তারা।

এ ছাড়া হেরাতে তালেবানদের পুঁতে রাখা বোমায় গাড়ি বিস্ফোরণে অন্তত আট বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। সূত্র : এএফপি।



মন্তব্য