kalerkantho


গবেষণা প্রতিবেদন

ইরাক-সিরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় মৃতের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য কমেছে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



ইরাক ও সিরিয়ায় গত বছর সন্ত্রাসী হামলায় মৃত্যুর সংখ্যা ব্যাপক হারে কমেছে। গত বৃহস্পতিবার লন্ডনভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান জেইন্স টেররিজম অ্যান্ড ইনসারজেন্সি সেন্টারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দুই দেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড অব্যাহত থাকলেও ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিদলের হামলায় মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। ইরাকে আগের বছরের তুলনায় গত বছর মৃতের হার শতকরা ৬০ ভাগ কম ছিল। ২০১৬ সালে জঙ্গি হামলায় মারা গিয়েছিলে আট হাজার ৪৩৭ জন। সেখানে গত বছর সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছে তিন হাজার ৩৭৮ জন। একই চিত্র সিরিয়াতেও দেখা গেছে। সেখানে ২০১৬ সালের তুলনায় ২০১৭ সালে মৃতের হার শতকরা ৪৪ ভাগ কমেছে। ২০১৬ সালে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে সিরিয়াতে ছয় হাজার ৪৭৭ জন নিহত হয়েছিল। অন্যদিকে ২০১৭ সালে মৃতের সংখ্যা ছিল তিন হাজার ৬৪১ জন।

এই প্রতিবেদনে জঙ্গিদের মৃত্যুর সংখ্যা যোগ করা হয়নি। সিরিয়াতে সরকার নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীর বিমান হামলায় মৃতের সংখ্যাও এখানে আমলে নেওয়া হয়নি।

ইসলামিক স্টেট ইরাক ও সিরিয়াতে তাদের নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলের বেশির ভাগ হারালেও হামলা পরিচালনার দিক থেকে তারা এখনো বিশ্বে সবচেয়ে সক্রিয় সন্ত্রাসী গোষ্ঠী। গবেষণাকেন্দ্রের প্রধান ম্যাথিউ হেনমান বলেছেন, ‘ভূখণ্ড সম্পর্কিত চাপ বৃদ্ধির কারণে ইসলামিক স্টেট জঙ্গিদল সহিংস অভিযানের দিকে ফিরে যাচ্ছে। তারা নিরাপত্তা বাহিনী এবং প্রতিদ্বন্দ্বী দলগুলোর কাছ থেকে নতুন করে দখল করা এলাকায় শত্রুদের বিরুদ্ধে হামলা চালাচ্ছে।’

গত বছর আইএসের হামলায় ছয় হাজার ৪৯৯ জন নিহত হয়েছে। এই সংখ্যা ২০১৬ সালের তুলনায় শতকরা ৪০ ভাগ কম। আইএসের সহিংসতায় মৃতের পরিমাণ কমলেও আগের বছরের তুলনায় গত বছর তাদের হামলার পরিমাণ বেড়েছে।

সন্ত্রাসী হামলায় ইরাক ও সিরিয়ায় আগের বছরের তুলনায় মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও বিশ্বের মধ্যে এখনো তারা শীর্ষে রয়েছে। আফগানিস্তানে গত বছর দুই হাজার ২৯৯ জন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া সোমালিয়াতে এক হাজার ৪৬৬ জন এবং ইয়েমেনে এক হাজার ৯২ জন সন্ত্রাসী হামলায় মারা গেছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য