kalerkantho


যুক্তরাষ্ট্রকে কিম জং উন

পরমাণু বোমার সুইচ আমার টেবিলেই

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



নতুন বছরে যুক্তরাষ্ট্রকে সতর্কবার্তা দিলেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। তিনি বলেছেন, ‘পরমাণু অস্ত্রের বাটন সব সময় তাঁর টেবিলেই’ আছে। গোটা যুক্তরাষ্ট্র উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্রের চৌহদ্দির মধ্যে আছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘এটা বাস্তবতা, কোনো হুমকি নয়।’ গতকাল বার্ষিক টেলিভিশন বক্তব্যে উন এ কথা বলেন।

অন্যদিকে উন প্রতিবেশী দক্ষিণ কোরিয়াকে শান্তির বার্তা পাঠিয়েছেন। বলেছেন, আগামী মাসে দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠেয় শীতকালীন অলিম্পিকে উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধিদল পাঠানো হতে পারে।

উত্তর কোরীয় নেতার বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মন্তব্য, ‘আমরা দেখব, আমরা দেখব।’ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যে নিজের রিসোর্ট মার-এ-লাগোয় নববর্ষ উদ্‌যাপনকালে ট্রাম্প সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

গত ২৯ নভেম্বর উন দাবি করেছিলেন, তাঁর দেশ পরমাণু হামলার সক্ষমতা অর্জন করেছে। বছরজুড়ে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার জেরে এমনিতেই ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর বাগিবতণ্ডা চলছিল। উনের ওই ঘোষণার পর দুই দেশের সম্পর্কের আরো অবনতি ঘটে এবং বিশ্লেষকরা আরেকটি বিশ্বযুদ্ধের আশঙ্কা প্রকাশ করেন। তবে এখন তাঁদের মতামত কিছুটা অন্য খাতে বইতে শুরু করেছে। কারণ যুক্তরাষ্ট্রের মিত্র দক্ষিণ কোরিয়ার দিকে সব সময় অস্ত্র উঁচিয়ে থাকা উন গতকাল তাদের উদ্দেশে শান্তির বার্তা পাঠিয়েছেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার দংগুক ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক কোহ ইউ-হোয়ান মনে করেন, এর মধ্য দিয়ে উন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে মুখোমুখি অবস্থান পাল্টে সহাবস্থানের দিকে যেতে চাচ্ছেন।

টেলিভিশন বক্তব্যে উন বলেন, ‘উত্তর কোরিয়ার জন্মের ৭০তম বার্ষিকী এবং দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠেয় শীতকালীন অলিম্পিক মিলিয়ে ২০১৮ সাল উত্তর ও দক্ষিণ উভয়ের জন্য এক অসামান্য বছর। উত্তর-দক্ষিণ সম্পর্কের বরফটা আমাদের গলানো দরকার। এর মধ্য দিয়ে এ বছরটাকে জাতির ইতিহাসে বিশেষভাবে অন্তর্ভুক্ত করে অর্থবহ করা দরকার।’  সূত্র : এএফপি, বিবিসি।


মন্তব্য