kalerkantho


মানবিক অধিকার পেল হোয়াংগানুই নদী

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মানবিক অধিকার পেল হোয়াংগানুই নদী

মানবীয় সত্তা স্বীকৃতি পাওয়া নিউজিল্যান্ডের হোয়াংগানুই নদীতে মাওরি গোষ্ঠী সদস্যরা। ছবি : সংগৃহীত

নিউজিল্যান্ডে আদিবাসীদের দেড় শ বছরের লড়াইয়ের পর তাদের পূজনীয় একটি নদীকে ‘মানবীয় সত্তা’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে সরকার। নদীকে জীবন্তসত্তার স্বীকৃতি দেওয়ার ঘটনা বিশ্বে এটাই প্রথম বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত বুধবার নিউজিল্যান্ডের পার্লামেন্টে একটি আইন পাস করা হয়, যার মাধ্যমে দেশটির তৃতীয় দীর্ঘতম নদী হোয়াংগানুই জীবন্তসত্তার স্বীকৃতি পায়। মাওরি গোষ্ঠী তাদের জীবন-জীবিকার প্রধান আশ্রয় হোয়াংগানুই নদীর এ স্বীকৃতির জন্য ১৬০ বছর ধরে লড়াই চালিয়েছে। স্থানীয় সংবাদ সূত্র বলছে, নিউজিল্যান্ডে আর কোনো বিষয় নিয়ে এত দীর্ঘদিন আইনি লড়াই চলেনি। মাওরিদের এ সাফল্যে এখন থেকে হোয়াংগানুই মানবিক অধিকার ভোগ করবে। এ নদীর প্রতিনিধিত্ব করবেন দুজন ব্যক্তি। এ দুজনের একজন আসবেন মাওরি গোষ্ঠী থেকে ও আরেকজন সরকারপক্ষ থেকে।

অ্যাটর্নি জেনারেল ক্রিস ফিনলেসন বলেন, ‘একজন বৈধ ব্যক্তির অধিকার, কর্তব্য ও দায়দায়িত্বসমেত এ নদী নিজের আইনি পরিচয় পাবে। একটি নদীর আইনি মানবিক অধিকারের অনুমোদন দেওয়ার ধারণাটা অনন্য। ’

বিষয়টা কেবল আইনি স্বীকৃতির মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই।

শতাব্দীকাল লড়াই চালিয়ে যাওয়া মাওরিদের সরকার পাঁচ কোটি ৬০ লাখ ডলার ক্ষতিপূরণ দিচ্ছে। সেই সঙ্গে নদী সংস্কারের জন্য দেওয়া হচ্ছে তিন কোটি ডলার।

পার্লামেন্টের মাওরি সদস্য অ্যাড্রিয়ান রুরাহোয়ে বলেন, ‘সামগ্রিকভাবে এ নদী সেই সব মানুষের কাছে অসীম গুরুত্বপূর্ণ, যাদের আগমন এ নদী থেকে এবং এ নদীকে ঘিরেই যারা জীবন যাপন করে। ’ পার্লামেন্টে আইন পাসের পর মাওরি প্রতিনিধিরা সুরে সুরে আনন্দ উদ্যাপন করে।

সূত্র: এএফপি, বিবিসি।


মন্তব্য