kalerkantho


‘মসুলে থাকা আইএস যোদ্ধাদের মরতে হবে’

নগরী থেকে বেরোনোর সর্বশেষ পথ বিচ্ছিন্ন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ইরাকের মসুল নগরীতে আইএস (ইসলামিক স্টেট) যোদ্ধারা আটকা পড়েছে। তাদের পালানোর পথ নেই।

তারা সবাই মারা পড়বে। নগরী থেকে বেরোনোর সর্বশেষ পথ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়ার পর আইএসবিরোধী অভিযানে নিয়োজিত জোটের সমন্বয়কারী মার্কিন দূত ব্রেট ম্যাকগার্ক এ কথা বলেছেন।

রবিবার বাগদাদে ম্যাকগার্ক সাংবাদিকদের বলেন, কাল রাতে ইরাকি বাহিনীর নবম ডিভিশন মসুল থেকে বেরোনোর শেষ পথটিও বন্ধ করে দিয়েছে। এখন মসুলে যেসব আইএস জঙ্গি রয়েছে তাদের মরতে হবে। কারণ তারা আটকা পড়েছে। তিনি বলেন, ‘আমরা কেবল মসুলে তাদের হারাতেই চাই না, বরং নিশ্চিত করতে চাই একজন জঙ্গিও যেন শহরটি ছেড়ে পালাতে না পারে। ’

আইএস ২০১৪ সালে ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরী মসুল দখল করে। মার্কিন সহায়তায় ইরাকি বাহিনী কয়েক মাস ধরে অভিযান চালিয়ে শহরটির একটি বড় অংশ নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। তাইগ্রিস নদীর মাধ্যমে বিভক্ত হওয়া শহরের পূর্বাঞ্চল তারা পুরোপুরি আইএসমুক্ত করেছে।

এখন তীব্র লড়াই চালাচ্ছে ঘন বসতিপূর্ণ মশ্চিম মসুল উদ্ধারে। এরই মধ্যে পশ্চিম মসুলের এক-তৃতীয়াংশ উদ্ধারের কথা জানিয়েছে ইরাকি বাহিনী।

ইরাকের কাউন্টার টেররিজম সার্ভিসের স্টাফ মেজর জেনারেল মান আল-সাদি রবিবার বলেন, এখন মসুলের পশ্চিমাঞ্চলের এক-তৃতীয়াংশের বেশি স্থান সরকারি বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য