kalerkantho


নিজেদের প্রেসিডেন্টের কথা ভাবছে বিজেপি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



উত্তর প্রদেশে বিপুল জয়ের ফলে জুলাইয়ে ভারতের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজেপির নিজস্ব প্রার্থী মনোনয়নের সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে গেছে। পাঁচ রাজ্যের ভোটের ফল বেরনোর পর বিজেপি সূত্র বলছে, আরএসএসের সঙ্গে যুক্ত নন এবং যাঁর বিরুদ্ধে কোনো চার্জশিট নেই এমন প্রার্থী খোঁজার সময় হয়েছে।

তবে বিজেপির এই বিজয় সরাসরিভাবে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের অঙ্ক বদলে দিতে পারবে না। উত্তর প্রদেশের প্রভাবে রাজ্যসভায় বিজেপির শক্তি আগামী বছরের আগে বাড়বে না। তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, এই জয় নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক কর্তৃত্ব অনেকটাই বাড়িয়ে দিল। এগিয়ে দিল মনস্তাত্ত্বিকভাবেও। ফলে প্রেসিডেন্ট পদে নিজেদের প্রার্থীকে জিতিয়ে আনতে সমস্যা হবে না তাঁদের পক্ষে। কারণ বজেপির প্রার্থীকে সমর্থনের প্রশ্নে ছোট দলগুলোকে পাশে টানাটা এখন সহজ হবে। এই ভোটে বিজেপি খারাপ ফল করলে প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও সর্বসম্মতির ভরসায় থাকতে হতো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে।

শনিবারে ভোটের ফল ঘোষণার পরে প্রণব মুখোপাধ্যায়ের দ্বিতীয় দফায় প্রেসিডেন্ট হওয়ার সম্ভাবনা কার্যত শেষ হয়ে গেল বলেই মনে করা হচ্ছে। আবার বাবরি মামলার খাঁড়া ঝুলে থাকায় লালকৃষ্ণ আদভানিও যে এই দৌড়ে নেই, তা-ও স্পষ্ট করে দিচ্ছে বিজেপি সূত্রই।

দলের নেতাদের ঘরোয়া আলোচনায় ইতিমধ্যে যাঁদের নাম উঠে আসছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন স্পিকার সুমিত্রা মহাজন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ, ঝাড়খণ্ডের রাজ্যপাল দ্রৌপদী মুর্মুসহ আরো কয়েকজন। তবে চমক দিয়ে একেবারে আনকোরা কাউকে বেছে নেওয়া হতে পারে শেষ মুহূর্তে। ঠিক যেভাবে ইউপিএ জমানায় প্রতিভা পাতিলকে বসিয়েছিলেন সোনিয়া গান্ধী।

এদিনের জয়ে আগামী বছর রাজ্যসভায় বিজেপির শক্তি বাড়বে। লোকসভায় বিজেপির বিপুল গরিষ্ঠতা থাকলেও যেকোনো বিল পাস করাতে এখন উচ্চকক্ষে যথেষ্ট বেগ পেতে হয় কংগ্রেস, তৃণমূলসহ বিরোধীদের দাপটে। সেই পরিস্থিতি বদলাতে চলেছে। আগামী বছরের প্রথমার্ধেই উত্তর প্রদেশ থেকে ১০টি আসন খালি হচ্ছে। যেখানে সমাজবাদী পার্টি, বহুজন সমাজবাদী পার্টি ও কংগ্রেসের সাংসদরা ছিলেন। ওই ১০টির মধ্যে ৯টি আসন নিশ্চিতভাবে বিজেপির হাতে আসবে। এ ছাড়া প্রেসিডেন্টের মনোনীত তিনজন সদস্যের (রেখা, শচীন টেন্ডুলকার, অনু আগা) মেয়াদ শেষ হচ্ছে। সেখানেও বিজেপি নিজেদের মনোনীত প্রার্থী আনবে। অন্যান্য রাজ্য থেকেও রাজ্যসভার কিছু সাংসদ বাড়বে বিজেপির।

সূত্র : আনন্দবাজার।


মন্তব্য