kalerkantho


উত্তর কোরীয় দূতাবাসের সামনে মালয়েশীয় পুলিশের অবস্থান

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত কাং চোলের বহিষ্কারাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট দূতাবাসের প্রবেশপথে অবস্থান নিয়েছে মালয়েশীয় পুলিশ। বহিষ্কৃত চোলকে বিমানবন্দর পর্যন্ত পৌঁছে দিতেই পুলিশ সেখানে রয়েছে বলে সংবাদকর্মীদের ধারণা।

উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সত্ভাই কিম জং নাম হত্যাকাণ্ড নিয়ে দেশটির সঙ্গে মালয়েশিয়ার বাগিবতণ্ডার জেরে গত শনিবার চোলকে বহিষ্কার করে মালয়েশীয় সরকার। ওই দিন মালয়েশিয়া ত্যাগের জন্য তাঁকে ৪৮ ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়, যা গতকাল শেষ হয়। নির্ধারিত সময়সীমা শেষ হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যে তথা গতকাল সন্ধ্যা সোয়া ৬টার মধ্যে চোল পেইচিংগামী বিমানে চড়বেন, এমন প্রত্যাশার কথা জানান মালয়েশীয় সরকারের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

গত ১৩ ফেব্রুয়ারি মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই নারী জং নামের মুখে বিষাক্ত ভিএস নার্ভ এজেন্ট মাখানো কাপড় চেপে ধরে। এর ১৫-২০ মিনিটের মাথায় হূদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়। মালয়েশিয়ায় এ ঘটনা ঘটায় সেখানকার পুলিশই এর তদন্ত শুরু করে এবং জং নামের মৃতদেহ সেই দেশেই রয়েছে। এ ঘটনায় মালয়েশীয় পুলিশের তদন্তে উত্তর কোরিয়ার অনাস্থা প্রকাশ, মালয়েশিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় পক্ষের সঙ্গে আঁতাতের অভিযোগ, মৃতদেহ হস্তান্তর নিয়ে দুই দেশের বাগিবতণ্ডা—সব মিলিয়ে একের পর এক ঘটনার ঘনঘটায় চোলকে বহিষ্কার করে মালয়েশিয়া সরকার। গত শনিবার মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তাঁকে হাজির হতে বলা হলে তিনি তা করেননি। এর আগেও তাঁর বিভিন্ন বক্তব্যের জবাবদিহির জন্য তাঁকে ডেকে পাঠায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

সর্বশেষ শনিবারও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডাকে সাড়া না দেওয়ায় তাঁকে বহিষ্কার করে সরকার। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য