kalerkantho


পালমিরায় আইএস ছারখার করেছে রোমান পুরাকীর্তি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



পালমিরায় আইএস ছারখার করেছে রোমান পুরাকীর্তি

মধ্য সিরিয়ার প্রত্নতাত্ত্বিক নগরী পালমিরার রোমান এম্ফিথিয়েটারে গত শনিবার বেহালা বাজিয়ে শোনান সিরিয়ার এক যন্ত্রসংগীত শিল্পী। এই প্রাচীন নগরী সম্প্রতি সিরীয় বাহিনীর নিয়ন্ত্রণে আসার পর দেশটির সেনাবাহিনী সাংবাদিকদের শহর ভ্রমণের আমন্ত্রণ জানালে এই আয়োজন করা হয়। ছবি : এএফপি

জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) দ্বিতীয়বার সিরিয়ার প্রাচীন নগরী পালমিরার দখল নিয়েও ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছে। প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের এক কর্মকর্তা পালমিরা পরিদর্শন করে শনিবার জানিয়েছেন, আইএস জঙ্গিরা সেখানকার একটি রোমান স্মৃতিসৌধের ব্যাপক ক্ষতি করেছে।

সিরিয়ায় ছয় বছর ধরে গৃহযুদ্ধ চলছে। এর মধ্যে দুইবার সরকারি বাহিনীকে হটিয়ে পালমিরার নিয়ন্ত্রণ নেয় আইএস। রাশিয়ার বিমানবাহিনীর সহায়তায় সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও তাদের মিত্ররা গত বৃহস্পতিবার পালমিরার পুনর্দখল নেয়। সর্বশেষ দুই মাস আগে নগরীটির নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল আইএস।

ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ পালমিরার অন্যতম একটি পুরাকীর্তি হচ্ছে টেট্রাপাইলন স্কয়ার মঞ্চ। এ পুরাকীর্তিটির বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, এর চার কোণে চারটি করে কলাম উঠে গেছে। প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের কর্মকর্তা ওয়ায়েল হাফিয়ান জানান, তিনি সেখানে গিয়ে ১৬টি কলামের মধ্যে মাত্র চারটি কলাম দাঁড়ানো দেখতে পেয়েছেন। বাকিগুলো জঙ্গিরা ধ্বংস করেছে। তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাসীরা এগুলো উড়িয়ে দিয়েছে—ধ্বংসযজ্ঞের মাত্রা ব্যাপক।

’ তবে তিনি এও জানান, নিচে পড়ে থাকা কয়েকটি কলাম অবশ্য পুরোপুরি গুঁড়িয়ে যায়নি। এগুলো আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে পূর্বাবস্থায় ফিরিয়ে আনা যাবে। ওয়ায়েল আরো জানান, জঙ্গিরা একটি রোমান থিয়েটারেরও ক্ষতি করেছে। তবে তারা প্রথমবার পালমিরা দখল করে যতটা ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েছিল, দ্বিতীয়বার তার চেয়ে কম চালিয়েছে বলে জানান হাফিয়ান। প্রথম দফায় আইএস প্রায় এক হাজার ৮০০ বছরের পুরনো একটি খিলানাকৃতির স্তম্ভ এবং প্রায় দুই হাজার বছরের পুরনো বালসামিন মন্দির গুঁড়িয়ে দেয়। সূত্র : রয়টার্স।


মন্তব্য