kalerkantho


সরকারি বাহিনী ও আইএসের লড়াই

সিরিয়ায় উত্তরাঞ্চল থেকে পালাচ্ছে মানুষ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রাশিয়া সমর্থিত সিরিয়ার সরকারি বাহিনী ও ইসলামিক স্টেটের (আইএস) মধ্যে ভয়াবহ লড়াই থেকে নিজেদের রক্ষা করতে সিরিয়ার বিধ্বস্ত উত্তরাঞ্চল থেকে হাজার হাজার মানুষ পালিয়ে যাচ্ছে। এক সপ্তাহ ধরে রাশিয়ার সমর্থনে সিরীয় বাহিনী আইএসের বিরুদ্ধে হামলার মাত্রা ব্যাপকভাবে বাড়িয়েছে।

জানুয়ারির মাঝামাঝি সময় থেকে সরকারি বাহিনী এ পর্যন্ত ৯০টি গ্রাম পুনরুদ্ধার করেছে। মানবাধিকার পর্যবেক্ষণ দল সিরিয়ান অবজারভেটরির তথ্য অনুসারে সরকারি বাহিনীর এখন মূল লক্ষ্য আইএস নিয়ন্ত্রিত খাপসার নিয়ন্ত্রণ নেওয়া।

আলেপ্পোতে পানি সরবরাহের মূল পাম্পস্টেশন খাপসায় অবস্থিত। আইএস সদস্যরা আলেপ্পোয় পানি সরবরাহের লাইন বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছে। যার ফলে গত দেড় মাসেরও বেশি সময় সিরিয়ার দ্বিতীয় জনবহুল শহরের লোকজন তীব্র পানির কষ্টে ভুগছে। সিরিয়ান অবজারভেটরির প্রধান রামি আবদেল রহমান গত শনিবার জানিয়েছেন, এক সপ্তাহ ধরে লড়াইয়ের তীব্রতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ সময়ে ৩০ হাজারেরও বেশি মানুষ এলাকা ছেড়ে চলে গেছে। তাদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু। এদের অধিকাংশই সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস (এসডিএফ) নিয়ন্ত্রণাধীন মানবিজ এলাকার দিকে গেছে।

’ মানবিজ এলাকার বেসামরিক প্রশাসনের কো-চেয়ারম্যান ইব্রাহিম আল কাফতান বলেছেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে ৪০ হাজারের মতো মানুষ মানবিজে এসেছে। সরকারি বাহিনী ও আইএসের মধ্যে লড়াই অব্যাহত থাকায় বাস্তুচ্যুত মানুষের আসার হার বেড়ে গেছে। এসব লোক কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিন পার করছে। ’

পরিস্থিতি সম্পর্কে আবদেল রহমান বলেছেন, ‘হাজার হাজার মানুষ পালিয়ে আসছে। পরিস্থিতি ক্রমেই কঠিন হয়ে পড়ছে। বাস্তুচ্যুত মানুষকে গ্রহণ করা স্থানীয় প্রশাসনের জন্য কঠিন হয়ে দাঁড়াবে। ’

২০১১ সালের মার্চ থেকে সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে অর্ধেকের বেশি মানুষকে ঘরবাড়ি ছাড়তে বাধ্য করেছে। লড়াইয়ের কবলে পড়ে এরই মধ্যে তিন লাখেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছে। ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে এ লড়াইয়ে প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পক্ষে যোগ দেয় রাশিয়া। তাদের সহায়তায় সিরিয়ার সরকারি বাহিনী গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল পুনর্দখল করে। গত বুধবার তারা মরুশহর পালমিরা পুনরুদ্ধার করেছে। সিরিয়ান অবজারভেটরি জানিয়েছে, সরকারি বাহিনী এখন আইএসের নিয়ন্ত্রণে থাকা উত্তর ও পূর্বাঞ্চলের শহরের দিকে এগোচ্ছে। শনিবার তারা শহরের ভেতর আইএসের স্থাপন করা মাইন পরিষ্কার করার কাজ করছে।

পালমিরা পুনরুদ্ধারে এক মাসের বেশি সময়ের লড়াইয়ে ১১৫ জন সরকার সমর্থিত যোদ্ধা ও আইএসের ২৮৩ সদস্য নিহত হয়েছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য