kalerkantho


আইএস নির্মূলে ট্রাম্পের সামনে নতুন রণকৌশল

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



আইএস নির্মূলে ট্রাম্পের সামনে নতুন রণকৌশল

ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিগোষ্ঠীকে নির্মূল করতে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সামনে নতুন ‘সমর-কৌশল’ হাজির করেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর—পেন্টাগন। গত সোমবার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস আইএসবিরোধী এই পরিকল্পনা ট্রাম্পের শীর্ষ নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের কাছে হস্তান্তর করেন। প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার পর নতুন পরিকল্পনা প্রণয়নে পেন্টাগনকে ৩০ দিনের সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

২০১৪ সালে ইরাক ও সিরিয়ার বিস্তৃত অঞ্চল দখল করে নেয় আইএস। স্থানীয় সেনা ও মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের চলমান অভিযানের মুখে এখন অনেকটাই দুর্বল হয়ে পড়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক এ জঙ্গিগোষ্ঠী। নির্বাচনী প্রচারণায় ট্রাম্পের অন্যতম একটি প্রতিশ্রুতি ছিল, আইএসবিরোধী অভিযান তিনি আরো বেগবান করবেন। এমনকি আইএসকে নির্মূল করতে একটা গোপন কৌশল আছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। যদিও এখন পর্যন্ত তাঁর সেই কৌশল জানা যায়নি। তিনি প্রায়ই হুমকি দিতেন, সন্দেহভাজন আইএস যোদ্ধাদের পরিবারের সদস্যদের হত্যা করা হবে।

হোয়াইট হাউসে বসার পর আইএসবিরোধী পরিকল্পনা পর্যালোচনা করতে পেন্টাগনকে ৩০ দিন সময় দেন তিনি। সোমবার পেন্টাগনের মুখপাত্র জেফ ডেভিস বলেন, পর্যালোচনার পর প্রাথমিক খসড়া তৈরির কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

এ ছাড়া তা এরই মধ্যে ট্রাম্পের শীর্ষ নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের হাতে তুলে দিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস। খসড়া পরিকল্পনা সম্পর্কে ডেভিস বলেন, ‘আইএসকে অল্প সময়ের মধ্যে কিভাবে নির্মূল করা যায়, সে বিষয়ে এখানে আলোকপাত করা হয়েছে। তবে এ নিয়ে শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে আরো আলোচনা করতে হবে। ’

ধারণা করা হচ্ছে, নতুন পরিকল্পনায় মধ্যপ্রাচ্যে আরো বেশি সৈন্য পাঠানোর কথা বলা হয়েছে। গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ জেনারেল জো ডানফোর্ড বলেন, ‘আমাদের চিন্তাভাবনায় শুধু ইরাক ও সিরিয়া নয়। হয়তো ইসলামিক স্টেটকে নিয়ে আলাদা কৌশল নেওয়া হবে। কিন্তু আমাদের সামগ্রিক পরিকল্পনার মধ্যে পুরো মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য জঙ্গিগোষ্ঠীও আছে। ’

ডানফোর্ড জানান, সামরিক পদক্ষেপের পাশাপাশি রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক পদক্ষেপও নিতে হবে। তিনি বলেন ‘১৫ বছর ধরে যারা জঙ্গিবিরোধী কর্মকাণ্ডে আছে, সবাই একমত যে শুধু সামরিকভাবে এই সন্ত্রাস মুকাবিলা করা যাবে না। ’ এ কারণে নতুন পরিকল্পনার মধ্যে সংশ্লিষ্ট সব বিভাগকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ইরাক ও সিরিয়ায় আগের চেয়ে অনেক দুর্বল হয়ে পড়েছে আইএস। তাদের কয়েক হাজার যোদ্ধা নিহত হয়েছে। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য