kalerkantho


মাদকের অভিযোগ এনে দুতার্তের শীর্ষ সমালোচককে গ্রেপ্তার

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মাদকের অভিযোগ এনে দুতার্তের শীর্ষ সমালোচককে গ্রেপ্তার

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তের মাদকবিরোধী যুদ্ধের কড়া সমালোচক সিনেটর লেইলা দে লিমাকে (৫৭) গতকাল শুক্রবার সিনেট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে মাদকপাচার ও আটক মাদক হোতাদের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণের অভিযোগ আনা হয়েছে।

দুই দিন আগেই দুতার্তকে একজন ‘সিরিয়াল কিলার’ অভিহিত করে তাঁকে ক্ষমতা থেকে টেনে নামানোর আহ্বান জানিয়েছিলেন লিমা। গ্রেপ্তার হওয়ার আগে লিমা সাংবাদিকদের জানান, দুতার্তের মাদকবিরোধী অভিযানের সমালোচনা বন্ধ করতে তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে মাদকপাচারের অভিযোগ সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং আমি নিরপরাধ। ’ তিনি দুতার্তের ‘দমন-পীড়নের’ বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকারও অঙ্গীকার করেন। মাদকপাচারের অভিযোগ প্রমাণিত হলে লিমার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে।

লিমা সিনেটে তাঁর কার্যালয়ের বাইরে সাংবাদিকদের আরো বলেন, ‘আমি যে কারণে যুদ্ধ করছি তার জন্য যদি কারাবরণ করতে হয় তাহলে সেটা হবে আমার জন্য সম্মানের। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। ’ তিনি বলেন, ‘আমি নির্দোষ। মাদক ব্যবসা থেকে সুবিধা নেওয়ার অভিযোগ সত্য নয়।

’ তিনি বলেন, ‘সত্য একদিন বের হয়ে আসবে। তারা আমাকে সত্য ও ন্যায়ের জন্য এবং দুতার্তে সরকারের পাইকারি হত্যাকাণ্ড ও দমন-পীড়নের বিরুদ্ধে যুদ্ধ থেকে নিবৃত্ত ও বিরত রাখতে পারবে না। ’

বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ লিমাকে গ্রেপ্তারের জন্য তাঁর বাড়িতে অভিযান চালায়। গ্রেপ্তার এড়াতে লিমা সিনেটে অবস্থান নেন। তিনি সারা রাত সিনেটে থাকার পর গতকাল সকালে সশস্ত্র পুলিশ কর্মকর্তাদের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। এরপর তাঁকে পুলিশের একটি গাড়িতে করে পুলিশ সদর দপ্তরের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়।

লিমার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি বিগত বেনিনো অ্যাকুইনো সরকারের আমলে বিচারমন্ত্রী থাকাকালে মাদক পাচারকারী দলের সমন্বয়ক ছিলেন। তবে লিমা ও তাঁর সমর্থকরা জোরালোভাবে দাবি করেছেন, তিনি নির্দোষ। তাদের অভিযোগ, দুতার্তে সরকার ও তাঁর মাদকবিরোধী যুদ্ধের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার জন্যই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

দুতার্তে দাভাওয়ের মেয়র থাকাকালে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন তত্কালীন বিচারমন্ত্রী লিমা।

দুতার্তে প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরও তাঁর কার্যকলাপের সবচেয়ে সরব সমালোচকদের অন্যতম একজনে পরিণত হন লিমা। মাত্র দুই দিন আগেই দুতার্তকে একজন ‘সিরিয়াল কিলার’ আখ্যায়িত করে তাঁকে ক্ষমতা থেকে টেনে নামানোর আহ্বান জানান লিমা। তিনি বলেন, দেশে গণ-অভ্যুত্থাণেরও ডাক দেন। গণ-অভ্যুত্থানের জেরেই তিন দশক আগে স্বৈরশাসক ফার্ডিন্যান্ড মার্কোসের পতন হয়েছিল বলে উল্লেখ করেন তিনি। সূত্র : এএফপি, বিবিসি।


মন্তব্য