kalerkantho


ট্রাম্পের অভিবাসী খেদানোর নীতি মানবে না মেক্সিকো

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নতুন সীমান্তনীতি তাঁরা মেনে নেবেন না। মঙ্গলবার ট্রাম্প প্রশাসন দেশটিতে বৈধ কাগজপত্র নেই বা নথিভুক্ত নন এমন অবৈধ অভিবাসীদের ধরতে নতুন করে দিকনির্দেশনা জারি করেছে। এর মাধ্যমে দেশটিতে বসবাস করা প্রায় সব অবৈধ অভিবাসীকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেওয়া যাবে। ট্রাম্প প্রশাসনের পক্ষ থেকে হোমল্যান্ড সিকিউরিটিকে এই নতুন দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়।

ট্রাম্প প্রশাসনের এ উদ্যোগের প্রতিক্রিয়ায় মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইস ভিদেগারাই বলেছেন, ‘কোনো একটি সরকারের নেওয়া একতরফা একটি সিদ্ধান্ত আমরা মেনে নেব না। ’ বলা হয়ে থাকে, যুক্তরাষ্ট্রে আসা অবৈধ অভিবাসীদের বড় অংশই এসেছে মেক্সিকো থেকে। সেখান থেকে আসা অভিবাসীদের স্রোত ঠেকাতে এর আগে মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল তোলার কথা বলেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

অবৈধ অভিবাসী ঠেকাতে ট্রাম্প প্রশাসনের নতুন দিকনির্দেশনায় বলা হয়েছে, অপরাধের রেকর্ড আছে, মার্কিন নিরাপত্তার জন্য ঝুঁকি কিংবা সামাজিক সুবিধা ব্যবস্থার অপব্যবহার করেছে এমন সব অনিবন্ধিত অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেওয়া হবে। এ ছাড়া যারা নিজেদের মিথ্যে পরিচয় দিয়েছে তাদের এবং যাদের জননিরাপত্তা ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য ঝুঁকি মনে করা হবে তাদেরও খুঁজে বের করা হবে।

এদিকে ট্রাম্প প্রশাসন দেশটির একটি আইন বাস্তবায়ন করার কথা ভাবছে, যেখানে বলা হয়েছে, অনিবন্ধিত যেকোনো অবৈধ অভিবাসী, তিনি যে দেশ থেকেই আসুন না কেন, তাদের মেক্সিকোতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এ ঘোষণায়ও ক্ষুব্ধ হয়েছে মেক্সিকো।

যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান ‘ইমিগ্রেশন অ্যান্ড ন্যাশনালিটি অ্যাক্ট’ অনুযায়ী এ নীতি বাস্তবায়ন করার সুযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে ভিদেগারি বলেন, ‘আমরা এ আইন আর মানছি না। কারণ আমাদের এর আর প্রয়োজন নেই। সূত্র : এএফপি, রয়টার্স।


মন্তব্য