kalerkantho


তিরানব্বইয়েও অবসরের ভাবনা নেই মুগাবের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



তিরানব্বইয়েও অবসরের ভাবনা নেই মুগাবের

বয়সটা মঙ্গলবার ৯৩ হলেও প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কোনো ইচ্ছা নেই জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবের। কারণ মুগাবের বিশ্বাস, তাঁর উত্তরসূরি হওয়ার মতো কেউ নেই।

স্থানীয় রেডিওতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মুগাবে বলেন, ‘সরে দাঁড়ানোর আহ্বান আমার দল, আমার দলের কংগ্রেস, দলের সেন্ট্রাল কমিটি থেকে আসতে হবে। কিন্তু দলের মধ্যে কী দেখতে পাই? ঠিক বিপরীত ঘটনা দেখা যায়। তারা আমাকে সরে দাঁড়াতে নয়, বরং নির্বাচনে দেখতে চায়। ’

মুগাবে আরো বলেন, ‘বেশির ভাগ মানুষ মনে করে দায়িত্ব নেওয়ার মতো উপযুক্ত কেউ নেই। আমার মতো গ্রহণযোগ্যতা আছে এমন কাউকে তারা দেখতে পায় না। তাই তারা আমাকেই নির্বাচনে চায়, পার্টির সব জায়গায় তারা আমাকে দেখতে চায়। ’

রবার্ট মুগাবে ১৯৮০ সাল থেকে জিম্বাবুয়ে শাসন করে চলেছেন। সম্প্রতি রাজধানী হারারেতে জানু-পিএফ পার্টির এক শোভাযাত্রায় মুগাবের স্ত্রী গ্রেস মুগাবে বলেন, ‘যদি সে মারা যায় এবং তার মৃতদেহও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে তাহলেও তার জয় হবে। আপনারা দেখতে পারবেন লোকজন তার মৃতদেহকে ভোট দিচ্ছে।

কৌতুক নয়, আমি ভাবগম্ভীরভাবে কথা বলছি। লোকজন মুগাবেকে কতটা ভালোবাসে তা বোঝাতেই আমি এটা বলছি। ’

আগামী বছরের নির্বাচনে মুগাবেকে আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দাঁড় করানোর জন্য তার দল সমর্থন দিয়ে চলেছে। তবে সাম্প্রতিক সময়ে মুগাবে জনসমাবেশ থেকে দূরে রয়েছেন।

গত সেপ্টেম্বরে মুগাবের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়েছিল। এইউ সম্মেলনের সফর সংক্ষিপ্ত করে দুবাইতে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য চলে যাওয়াতেই এমন গুজব রটেছিল। পরে কৌতুক করে মুগাবে বলেছিলেন, ‘আমি সত্যিই মারা গিয়েছিলাম, কিন্তু আবার জীবিত হয়ে ফিরে এসেছি। ’ সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য