kalerkantho


উত্তর কোরিয়াকে বাগে আনতে চীনের সাহায্য চাইল যুক্তরাষ্ট্র

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন জার্মানির বনে শুক্রবার প্রথমবারের মতো চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের সঙ্গে আলোচনা করেছেন। এই আলোচনায় তিনি উত্তর কোরিয়াকে বাগে আনতে চীনের সহায়তার অনুরোধ জানিয়েছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর দুই দেশের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে এটাই ছিল প্রথম আলোচনা। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টকে  ট্রাম্পের ফোন করার বিষয়টি ভালোভাবে নেয়নি চীন। এ ঘটনায় চীন ক্ষিপ্ত হলে পরবর্তী সময়ে চীনের প্রেসিডেন্ট শি চিনপিংকে ট্রাম্প ফোন করলে পরিস্থিতি কিছুটা স্বস্তিদায়ক হয় এবং বনে ‘জিটুয়েন্টি’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে চীন আসতে রাজি হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত মুখপাত্র মার্ক টোনার বলেন, ‘টিলারসন ও ওয়াং দুই দেশের প্রেসিডেন্টের মধ্যে সাম্প্রতিক আলোচনা নিয়ে কথা বলেন এবং দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা এগিয়ে নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করেন। টিলারসন ক্রমে ভয়ানক হয়ে ওঠা উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক বোমা এবং ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির রাশ টেনে ধরতে চীনকে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান।

সাম্প্রতিক সময়ে উত্তর কোরিয়া বেশ কয়েকবার দূর পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের দুই মিত্র দেশে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের উদ্বেগ বেড়ে চলেছে। এ অবস্থায় উত্তর কোরিয়ার হুমকি থেকে দুই মিত্র দেশকে রক্ষায় সব ধরনের সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়ে চলেছে ওয়াশিংটন। বৃহস্পতিবার সম্মেলনে দেওয়া যৌথ বিবৃতিতে টিলারসন বলেন, উত্তর কোরিয়ার হাত থেকে দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানকে রক্ষা করতে যুক্তরাষ্ট্র তার পারমাণবিক অস্ত্রসহ সব অস্ত্র ব্যবহার করবে।

যুক্তরাষ্ট্র এরই মধ্যে দক্ষিণ কোরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বংসী মিসাইল ‘থাড’ মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে করে নিজেদের নিরাপত্তা নিয়ে চীন উদ্বিগ্ন হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এ সম্মেলনে টিলারসন ও ওয়াং দুই দেশের মধ্যে ব্যবসা- বাণিজ্য বিষয়েও আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছেন টোনার।

সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য