kalerkantho


মেলানিয়ার দেশে ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে সায় পুতিনের

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে প্রথম বৈঠকের জন্য স্থান হিসেবে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত স্লোভেনিয়ায় আপত্তি নেই রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাাদিমির পুতিনের। অবশ্য স্থান নির্ধারণের বিষয়টি শুধু মস্কোর একার নয় বলে তিনি মন্তব্য করেছেন।

শুক্রবার মস্কোতে স্লোভেনিয়ার প্রেসিডেন্ট বরুত পাহরের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে দেশটির রাজধানী লিউব্লিয়ানায় বৈঠক করার বিষয়ে সায় দেন তিনি। দুই পরাশক্তির বৈঠকের বিষয়ে তৃতীয় এমন একটি দেশ থেকে প্রস্তাব এলো, যেখানে মার্কিন প্রেসিডেন্টের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের বেড়ে ওঠা। আর এ ছাড়া ২০০১ সালে জর্জ ডাব্লিউ বুশ ও পুতিনের প্রথম বৈঠকটিও এই লিউব্লিয়ানায় হয়েছিল।

১৯৭০ সালে স্লোভেনিয়ার ছোট্ট শহর সেভনিচায় শৈশব কাটে মেলানিয়ার। পরে মিলান ও প্যারিসে মডেল হিসেবে ক্যারিয়ার গড়েন তিনি। ১৯৯৬ সালে তিনি নিউ ইয়র্কে পাড়ি জমান। দুই বছর পর কিট ক্যাট ক্লাবের একটি পার্টিতে তাঁর চেয়ে ২৪ বছরের বড় ট্রাম্পের সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয়।

গত মাসে হোয়াইট হাউসে প্রবেশ করা ট্রাম্পের সঙ্গে পুতিনের আলোচনায় দুই দেশের ‘সম্পর্কে নতুন বাঁক’ আসতে পারে বলে বিশ্লেষকদের ধারণা।

ক্রিমিয়া নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়ার বিরাজমান শীতল সম্পর্কে ‘মলম’ দেওয়ার কথা বলে আসছেন ট্রাম্প ও পুতিন উভয়ই।

স্লোভেনিয়াকে স্থান হিসেবে পছন্দ হলেও কবে এই বৈঠকের ভাবনা চলছে তা পরিষ্কার করেনি মস্কো। পুতিন বলেন, ‘ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকের জন্য লিউব্লিয়ানা সত্যিই একটি অসাধারণ স্থান। তবে এটা শুধু আমাদের একার দেখার বিষয় নয়। ’ লিউব্লিয়ানার প্রস্তাবে তাঁর কোনো আপত্তি নেই বলে জানান রুশ প্রেসিডেন্ট। সূত্র : বিডিনিউজ।


মন্তব্য