kalerkantho


ইভানকা ইস্যুতে মন্তব্যের জের

এবার ট্রাম্পের উপদেষ্টা কনওয়ের শাস্তি দাবি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



এবার ট্রাম্পের উপদেষ্টা কনওয়ের শাস্তি দাবি

মেয়ে ইভানকা ট্রাম্পের ব্যবসার পক্ষে সাফাই গেয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তীব্র সমালোচনার মুখে তো পড়েছেনই, একই বিষয় নিয়ে কথা বলায় এবার তোপের মুখে পড়েছেন প্রেসিডেন্টের অন্যতম ঘনিষ্ঠ সহযোগী কেলিয়ান কনওয়ে। তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিও উঠেছে।

গত বৃহস্পতিবার ট্রাম্পের অন্যতম উপদেষ্টা কনওয়ে ফক্স নিউজকে এক সাক্ষাৎকারে ইভানকার পণ্য কিনতে লোকজনের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘পোশাকগুলো খুব চমৎকার। আমি নিজেও কয়েকটা কিনেছি। আমি একদম বিনা মূল্যে বাণিজ্যিকভাবে এখনই এর প্রচার চালাচ্ছি। আসুন, আজই এ পোশাক কিনুন, সবাই কিনুন। আপনারা অনলাইনেও এগুলো দেখতে পাবেন। ’

যুক্তরাষ্ট্রের চেইন শপ নর্ডস্ট্রম ইভানকার প্রতিষ্ঠানের তৈরি পোশাক বিক্রি বন্ধের ঘোষণা দেওয়ার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্টে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন। পরে হোয়াইট হাউসের অ্যাকাউন্ট থেকেও তিনি মেয়ের ব্যবসার বিষয়ে টুইট করেন। গত বুধবার করা এসব টুইটে তিনি দাবি করেন, তাঁর মেয়ের সঙ্গে অন্যায় করা হচ্ছে।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে পারিবারিক ব্যবসায়িক স্বার্থ নিয়ে কথা বলায় এবং এ কাজে সরকারি টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করায় বিরোধী দল ডেমোক্রেটিক পার্টির সদস্যরা তো বটেই, ট্রাম্পের নিজ দল রিপাবলিকান শিবির থেকেও প্রচণ্ড সমালোচনা আসে। এক দিনের মাথায় তাঁর অন্যতম সহযোগী কনওয়ে এ বিষয়ে কথা বলায় সমালোচনার বহর আরো বেড়েছে।

পর্যবেক্ষণ ও সরকার ব্যবস্থায় সংস্কারবিষয়ক কমিটির চেয়ারম্যান রিপাবলিকান নেতা জেসন শ্যাফেট্জ এক টুইটে লিখেছেন, ‘উনি (কনওয়ে) যা করেছেন, সেটা ভুল, ভুল, ভুল। ’ তিনি ও কমিটির আরেক সদস্য ডেমোক্র্যাট নেতা এলিজাহ কিউমিংস সরকারের নৈতিকতাবিষয়ক কার্যালয়ের প্রধান ওয়াল্টার শবের উদ্দেশে এক চিঠিতে লিখেছেন, ‘কনওয়ের বক্তব্য স্পষ্টভাবে সরকারি কর্মকর্তাদের নৈতিকতাবিষয়ক নীতিমালার লঙ্ঘন এবং সেটা অগ্রহণযোগ্য। ’ তাই তাঁরা কনওয়ের বিরুদ্ধে ‘যথাযথ শাস্তিমূলক ব্যবস্থা’ গ্রহণ তথা তাঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে তিরস্কার করার আহ্বান জানিয়েছেন। ওয়াল্টার শব নিজেও জানিয়েছেন, ইভানকার ব্যবসা নিয়ে কথাবার্তার জেরে সাধারণ মানুষের পক্ষ থেকে সরকারের নৈতিকতাবিষয়ক কার্যালয়ে প্রচুর মন্তব্য আসছে।

এদিকে কনওয়ে জানিয়েছেন, কংগ্রেস নেতাদের ওই চিঠির ব্যাপারটি ট্রাম্প শিবির জানে এবং এটা নিয়ে ভেতরে ভেতরে আলোচনা হচ্ছে। তাঁর প্রতি প্রেসিডেন্টের শতভাগ সমর্থন আছে দাবি করে তিনি আরো বলেন, ‘আমার যেটুকু বলার, সেটা হলো আপনার জীবনে কোনো কোনো সময়ে এমন একজনের নেতৃত্ব পাওয়া উচিত, যিনি ঠিক সে রকম আচরণই করবেন, যেমনটা আজ প্রেসিডেন্ট আমার সঙ্গে করছেন। ’

উল্লেখ্য, হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসারও জানিয়েছেন, ইভানকা ইস্যু নিয়ে কনওয়ের সঙ্গে ইতিমধ্যে তাঁদের কথা হয়েছে। রাজনীতিকদের সমালোচনা সত্ত্বেও কনওয়ের প্রতি প্রেসিডেন্টের সমর্থন অবশ্যই অব্যাহত থাকবে বলেও হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়েছে। সূত্র : এএফপি, বিবিসি।


মন্তব্য