kalerkantho


ইহুদি বসতিসংক্রান্ত নতুন আইন

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তীব্র সমালোচনা যুক্তরাষ্ট্র চুপ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ফিলিস্তিনিদের ব্যক্তিমালিকানাধীন জমিতে নির্মিত ইহুদি বসতিকে বৈধতাদানের জন্য ইসরায়েলের পার্লামেন্টে পাস করা নতুন আইনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমালোচনার হার বাড়লেও নিশ্চুপ যুক্তরাষ্ট্র। গত সোমবার নেসেটে আইনটি পাস হওয়ার পর বিভিন্ন দেশ ও সংস্থা এর নিন্দা জানায় এবং আইনটি মধ্যপ্রাচ্যের শান্তিপ্রক্রিয়ায় ব্যাঘাত ঘটাবে বলে মন্তব্য করে।

ইসরায়েল সরকারের অনুমতি ছাড়াই ফিলিস্তিনিদের ব্যক্তিমালিকানাধীন জমিতে নির্মিত ইহুদি বাড়ি তথা ইহুদি আউটপোস্টগুলোকে বৈধতা দিতে গত সোমবার নেসেট আইন পাস করে। এ আইন পাস হওয়ায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করে জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতিরেস গত মঙ্গলবার বিবৃতি দেন। বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ওই বিল আন্তর্জাতিক আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এবং এটার কারণে ইসরায়েলকে সুদূরপ্রসারী আইনি জটিলতার মুখে পড়তে হবে। ’ ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের জন্য দুটি আলাদা রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় বাধা সৃষ্টিকারী যেকোনো পদক্ষেপ এড়িয়ে চলা দরকার এবং এসংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা অবশ্যই আলোচনার মাধ্যমে সমাধান হওয়া দরকার বলে গুতিরেস মন্তব্য করেন।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ইসরায়েলের এ পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছে। সংস্থার পররাষ্ট্রনীতিবিষয়ক প্রধান ফেদেরিকা মোগেরিনি বলেন, ‘ফিলিস্তিনিদের ভূসম্পত্তির অধিকার কেড়ে নেওয়াটাকে ইরসায়েলি আইনে বৈধতা দেওয়ার মধ্য দিয়ে দেশটি এক নতুন ও বিপজ্জনক পথে প্রবেশ করল। ’

ফরাসি সরকার ইসরায়েলের এ আইনকে দ্বিরাষ্ট্রিক সমাধানের ওপর নতুন আক্রমণ বলে অভিহিত করেছে। এ ছাড়া ব্রিটেন বলেছে, ইসরায়েলের এমন পদক্ষেপ আন্তর্জাতিক মিত্রদের কাছে দেশটির মর্যাদা ক্ষুণ্ন করেছে। ইসরায়েলের প্রতিবেশী জর্দান এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

এ ছাড়া নিন্দা জানিয়েছে আরব লিগ। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য