kalerkantho


কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনা ভেঙে দিলেন দুতার্তে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের সঙ্গে আলোচনা ভেঙে দিলেন দুতার্তে

ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে কমিউনিস্ট বিদ্রোহীদের সঙ্গে শান্তি আলোচনা ভেঙে দিয়েছেন। এর আগে সরকার ও বিদ্রোহী উভয় পক্ষই একতরফাভাবে অস্ত্রবিরতি চুক্তি না মানার ঘোষণা দিয়েছিল।

কয়েক দশক ধরে চলা এই সংঘর্ষ অবসানের লক্ষ্যে শান্তি আলোচনা শুরুর জন্য দুতার্তে শীর্ষস্থানীয় কমিউনিস্ট নেতাদের মুক্তির ব্যবস্থা করেছিলেন। ‘বিদ্রোহীরা আবার শত্রুতা শুরু করায়’ তিনি তাদের প্রতি তীব্র নিন্দা করেন। শনিবার দুতার্তে বলেন, ‘দীর্ঘ লড়াইয়ে জন্য আমি তৈরি। আমি সেনাদের দীর্ঘ লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত থাকার জন্য বলেছি। আমি বলেছি, আমাদের প্রজন্মে শান্তি আসছে না। ’

গত আগস্টে দুই পক্ষই অস্ত্রবিরতি ঘোষণা দিয়েছিল এবং শান্তির জন্য রোমে অনানুষ্ঠিক আলোচনার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। আলোচনা বন্ধ হওয়ায় দুতার্তে আলোচনাকারীদের দেশে ফেরার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি এখন বিদ্রোহী নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় ইচ্ছুক নই। তাদের সঙ্গে এখন আমি যেকোনো আলোচনার বিরোধী।

তাদের বিরুদ্ধে আমরা ৫০ বছর ধরে লড়াই করছি। যদি আরো ৫০ বছর ধরে এই সংঘর্ষ চলতে থাকে তা চলুক। আমি আলোচনাকারীদের দেশে ফিরে আসার জন্য বলেছি। ’

আগস্ট থেকে চলা যুদ্ধবিরতি গত সপ্তাহে অমান্য করা শুরু করে বিদ্রোহীরা। তারা দুতার্তে সরকারের বিরুদ্ধে শত্রুতা এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ করে। জবাবে সরকার বিদ্রোহীদের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি চুক্তি বাতিল করে।

গত সপ্তাহে চার সেনা হত্যারও নিন্দা করেন প্রেসিডেন্ট দুতার্তে। তিনি জানান, একজন সেনার দেহে ৭৬টি বুলেটের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

১৯৬৮ সালে কমিউনিস্টরা দেশটিতে সশস্ত্র বিদ্রোহ শুরু করে। বিশ্বের অন্যতম এই দীর্ঘ লড়াইয়ে অন্তত ৩০ হাজার প্রাণহানি হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য