kalerkantho


পাকিস্তানকে রাজনাথের হুঁশিয়ারি

প্রয়োজনে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক আবারও হতে পারে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



পাকিস্তান নিজেদের বদলে নিলে ভালো। না হলে আবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হবে না—এমন ‘গ্যারান্টি’ দেওয়া যাচ্ছে না।

পাকিস্তানকে এ হুঁশিয়ারি দিলেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

কাশ্মীরের উরির সেনা ছাউনিতে জঙ্গি হামলার জবাব দিতে নিয়ন্ত্রণরেখা (এলওসি) পার হয়ে পাকিস্তানের অভ্যন্তরে অভিযান চালিয়েছিল ভারতের কমান্ডো বাহিনী। সেই অভিযানের পর মাত্র মাস চারেক কেটেছে। এর মধ্যেই ফের পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি শুনিয়ে দিলেন রাজনাথ। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছেন, ‘পাকিস্তান আমাদের প্রতিবেশী। তারা যদি ইতিবাচক দিকে বদলায়, তা হলে এমন পদক্ষেপ (সার্জিক্যাল স্ট্রাইক) করার প্রয়োজন আর হবে না। কিন্তু যদি জঙ্গি সংগঠনগুলো এবং অন্যরা ভারতকে নিশানা বানাতে থাকে, তাহলে আমরা নিশ্চয়তা দিতে পারছি না যে আবার সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করব না। ’

ভারতের মন্ত্রিসভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পরেই রাজনাথের স্থান। পাকিস্তানকে ফের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করার হুঁশিয়ারি দিয়েই থেমে থাকেননি।

পাকিস্তান সম্পর্কে ভারতের মনোভাব যে একটুও নরম হয়নি, তাও তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন। পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী লস্কর-ই-তৈয়বার প্রধান হাফিজ সাইদকে গৃহবন্দি করা আসলে ‘লোক দেখানো’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তাঁর মতে, যদি সত্যিই পাকিস্তান সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিত, তাহলে হাফিজ সাইদের বিরুদ্ধে তারা অভিযোগ দায়ের করত, তাকে কাঠগড়ায় তুলত এবং জেলে পাঠাত।

পলাতক আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিম সম্পর্কেও রাজনাথ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘দাউদকে হাতে পাওয়া শুধু সময়ের অপেক্ষা। আমি আত্মবিশ্বাসী যে আমরা তাকে হাতে পাবই। শুধু কিছুটা সময়ের অপেক্ষা। ’

পাকিস্তান সম্পর্কে কঠোর অবস্থান নিলেও, চীনের বিষয়ে কিন্তু রাজনাথের মন্তব্য ইতিবাচক। জইশ-প্রধান মাসুদ আজহারকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার প্রয়াস জাতিসংঘে বারবার আটকে দিচ্ছে চীন। সে প্রসঙ্গে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ‘হয়তো নিজেদের কোনো অভ্যন্তরীণ কারণে চীন আজ আমাদের সমর্থন করছে না। কিন্তু আমি আশাবাদী যে ভবিষ্যতে চীনও আমাদের সমর্থন করবে। ’

রাজনাথের কণ্ঠে একই ধরনের ইতিবাচক সুর শোনা গিয়েছে আমেরিকা সম্পর্কেও। সাতটি মুসলিম প্রধান দেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বিশ্বব্যাপী সমালোচিত হচ্ছেন। কিন্তু রাজনাথ ট্রাম্পের সমালোচনা করেননি। আমেরিকার সামনে সন্ত্রাসের যে বিপদ রয়েছে, সে বিপদের প্রাবল্য আঁচ করেই হয়তো ট্রাম্প এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন এমনই মন্তব্য ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা।


মন্তব্য