kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কুয়েতে পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া হয়েছে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



কুয়েতের মন্ত্রিসভার সদস্যরা পদত্যাগ করেছেন। দেশটির পার্লামেন্টও ভেঙে দেওয়া হয়েছে।

এর ফলে দেশটিতে আগাম নির্বাচন দিতে হবে।

বিবিসি বলছে, তেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরকারের সঙ্গে আইন প্রণেতাদের মতবিরোধের জেরে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এ ঘটনাকে ‘সহযোগিতার ঘাটতি’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিশ্বজুড়েই তেলের দাম কমে গেছে। ফলে কুয়েতের সরকার কিছু সুবিধা বন্ধ করে দিয়েছে। এর মধ্যে জ্বালানি খাতে ভর্তুকি কমিয়ে পেট্রলের দাম ৮০ শতাংশ বাড়ানোর বিষয়টিও রয়েছে। এ নিয়ে মতবিরোধের সৃষ্টি হয়।

আগামী বছরের জুলাইয়ে সরকারের চার বছর পূর্ণ হওয়ার কথা ছিল। দেশটির পার্লামেন্টের আইন প্রণেতাদের সরকারপন্থী বলে মনে করা হয়। কিন্তু আইন প্রণেতারা তেলের মূল্য নিয়ে মন্ত্রীদের কাছে জানতে চাওয়ার ব্যাপারে তিনটি অনুরোধ জানালেও একটিও রাখা হয়নি।

রবিবার বিকেলে কুয়েতের আমির শেখ সাবাহ আল-আহমাদ আল-সাবাহ এক জরুরি সরকারি বৈঠকের পর ‘উদ্ভূত পরিস্থিতিতে’ জাতীয় পর্ষদ বা পার্লামেন্ট বিলুপ্ত করে ডিক্রি জারি করেন। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এবং সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, পুরো মন্ত্রিসভা পদত্যাগ করেছে।

উপসাগরীয় অঞ্চলে কুয়েতের পার্লামেন্ট সবচেয়ে ক্ষমতাধর হলেও শাসক আল-সাবাহ পরিবারই দেশটির সব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দিয়ে থাকে। এর আগেও দেশটিতে একাধিকবার পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সূত্র : বিডিনিউজ।


মন্তব্য