kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আলেপ্পোয় ব্যাপক গোলাবর্ষণ, ৬ শিশুসহ নিহত ২০

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



আলেপ্পোয় ব্যাপক গোলাবর্ষণ, ৬ শিশুসহ নিহত ২০

সিরিয়ার সরকারি বাহিনী শুক্রবার রাতভর দেশটির দ্বিতীয় বৃহত্তম নগরী আলেপ্পোতে বিদ্রোহীদের অবস্থান লক্ষ্য করে ভারী গোলা বর্ষণ করেছে। শনিবার বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিনিধি এ কথা জানিয়েছেন।

এসব হামলায় ২০ বেসামরিক ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছে, যাদের মধ্যে ছয় শিশু রয়েছে।

বাশার আল-আসাদ সরকারের মিত্র রুশ বাহিনীর সহায়তায় সরকারি বাহিনী গোটা আলেপ্পো বিদ্রোহীদের কাছ থেকে ফের নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার লক্ষ্যে এ হামলা চালায়। রাশিয়া পশ্চিমা রাষ্ট্রগুলোর আহ্বান উপেক্ষা করে সিরীয় বাহিনীর এই সামরিক অভিযানে তাদের সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।

পশ্চিমা দেশগুলো সিরিয়ার সরকারি বাহিনীর সহায়তায় রাশিয়াকে এই বিমান হামলা বন্ধ রাখার আহ্বান জানিয়েছিল। রাশিয়ার বিমান হামলার সহায়তা নিয়ে বাশার বাহিনী বিদ্রোহীদের দখলকৃত এলাকাগুলোর দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

আলেপ্পোতে বেসামরিক হতাহতের সংখ্যা বেড়েই যাচ্ছে। নগরীটির বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত পূর্বাঞ্চলের প্রায় দুই লাখ ৫০ হাজার বাসিন্দাকে সরকারি বাহিনী অবরুদ্ধ করে রেখেছে। অন্যদিকে সরকারি বাহিনী নিয়ন্ত্রিত আলেপ্পোর পশ্চিমাঞ্চলে বসবাসকারী প্রায় ১২ লাখ লোক প্রতিদিনই বিদ্রোহীদের রকেট হামলার সম্মুখীন হচ্ছে।

দাতব্য সংস্থা ডক্টরস উইদাউট বর্ডার্স আলেপ্পোর পূর্বাঞ্চলে সিরিয়া ও রাশিয়ার এই প্রচণ্ড বিমান হামলা ও গোলা বর্ষণকে ‘রক্তের বন্যা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।

ব্রিটেনভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানিয়েছে, শুক্রবার বিদ্রোহীদের দখলকৃত এলাকায় নিহতদের মধ্যে ছয় শিশু রয়েছে। ওই হামলায় ২০ বেসামরিক লোক প্রাণ হারায়। সংস্থাটি আরো জানায়, গত ২২ সেপ্টেম্বর থেকে নগরীর পূর্বাঞ্চলে শুরু হওয়া সরকারি বাহিনীর এই অভিযানে এখন পর্যন্ত ২২০ জনের বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে।

এদিকে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হয়, আলেপ্পোর পশ্চিমাঞ্চলে শুক্রবার বিদ্রোহীদের নিক্ষিপ্ত রকেট হামলায় ১৫ বেসামরিক লোক নিহত ও ৪০ জন আহত হয়। সূত্র : এএফপি।


মন্তব্য